খেলার মাঠেজাতীয়রুপসী বাংলা

দিনাজপুরে বজ্রপাতে ৭ কিশোরের মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি : দিনাজপুরের পৃথক দুই স্থানে বজ্রপাতে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে দিনাজপুর সদর উপজেলার ৮ নং উপশহরে একসঙ্গে মোবাইলে গেম খেলার সময় বজ্রপাতে নিহত হয়েছে ৪ জন কিশোর এবং দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলায় পুকুরে মাছ ধরার সময় নিহত হয়েছেন ৩ জন।

দিনাজপুর সদর উপজেলায় নিহতরা হলেন, আইনুল ইসলামের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন (১৩), বাবুল হোসেনের ছেলে আপন (১৪), মৃত সিদ্দিক হোসেনের ছেলে হাসান আলী (১২) ও সাজু মন্ডলের ছেলে মিম মন্ডল (১৩)। আহতরা হচ্ছে মমিনুল ইসলাম (১৩), আতিক (১৫) এবং অপর আর একজন। হতাহতদের সকলেরই বাড়ী দিনাজপুর সদর উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামে।

প্রত্যক্ষদর্শী ফিরোজ হোসেন ও হাজী মকসেদ আলী জানান, সোমবার বিকাল ৩টার দিকে প্রচণ্ড বৃষ্টিপাতের সময় দিনাজপুর উপশহরের ৮নং রেলঘুন্টির কাছের একটি টিনসেডের মধ্যে মোবাইলে গেম খেলছিল ৭ জন কিশোর। এ সময় বজ্রপাত হলে ৭ জন গুরুতর আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে ৪ জনের মৃত্যু হয়। অপর ৩ জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানান তারা।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার ওসি মোজাফ্ফর হোসেন ৪ জনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে চিরিরবন্দর উপজেলার দক্ষিণ সুকদেবপুর গ্রামে পুকুরে মাছ ধরার সময় বজ্রপাতে একসঙ্গে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন, দক্ষিণ সুকদেবপুর গ্রামের মকছেদ আলীর ছেলে নুর ইসলাম (২৪), সামু মোহাম্মদের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (২৩) ও আলতাফ হোসেনের ছেলে আব্বাস আলী (২২)।

চিরিরবন্দর উপজেলার আব্দুলপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মঈনউদ্দীন শাহ এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, সোমবার বিকেল ৪টায় বাড়ির পাশের একটি পুকুরে একসঙ্গে মাছ ধরার সময় বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়।

0Shares

Comment here