অর্থনীতিখেলার মাঠেজাতীয়ধর্মকর্মপ্রযুক্তিরুপসী বাংলালাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গনসীমানা পেরিয়েস্বাস্থ্যপাতা

শহীদ জিয়া বিপর্যস্ত জাতিকে রক্ষা করেছেন সর্বোচ্চ ঝুঁকি নিয়েছেন : মঞ্জু

খুলনা প্রতিনিধি | সন্জ্ঞিব দত্ত | শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ছিলেন আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার। তিনিই জাতির সঙ্কটময় মুহূর্তে বার বার দাঁড়িয়েছেন নির্ভয়ে, মাথা উঁচু করে। বিপর্যস্ত জাতিকে রক্ষা করেছেন সর্বোচ্চ ঝুঁকি নিয়ে। বলেছেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা, বহুদলীয় গনতন্ত্রের প্রবর্তক বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের স্থপতি ও আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাত বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষে মঙ্গলবার (২৫ মে) বেলা ১২ টায় প্রস্তুতি সভায় সভাপতির বক্তব্যে মঞ্জু আরও বলেন, “স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েই তিনি ক্ষান্ত থাকেননি, দেশমাতৃকার মুক্তির জন্য হানাদারদের বিরুদ্ধে সেক্টর কমান্ডার ও জেড ফোর্সের অধিনায়ক হিসেবে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দেন। স্বাধীনতা যুদ্ধে তার এ অতুলনীয় ভূমিকা ইতিহাসে উজ্জ্বল হয়ে আছে।

সভায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচির আলোকে ৩দিনের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। কর্মসূচি’র মধ্যে রয়েছে ২৯ মে বিকেল ৩টায় খুলনা প্রেসক্লাব অডিটরিয়ামে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও জাতীয় স্থায়ী কমিটির নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে কেন্দ্রীয় ভার্চুয়াল আলোচনায় সভায় অংশগ্রহণ। ৩০ মে সূর্যোদ্বয়ের সাথে সাথে সকল দলীয় কার্যালয়ে দলীয় পতাকা অর্ধনর্মিতকরণ, কলো পতাকা উত্তোলন ও কালো ব্যাজ ধারণ। সকাল সাড়ে ১০টায় দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও শহীদ জিয়ার আত্মার মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া। বাদ জোহর থেকে বাদ এশা ওয়ার্ড পর্যায়ে দোয়া অনুষ্ঠান ও দুঃস্থদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ। ৩১ মে থানা পর্যায়ে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান।

সভার শুরুতে অসুস্থ বিএনপির চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়, একই সাথে মহানগর বিএনপি নেতা মীর কায়সেদ আলী ও তার পরিবার, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলামসহ অসুস্থ সকল নেতাকর্মিদের রোগমুক্তি কামনা করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা আব্দুল গফ্ফার।

সভায় বক্তব্য রাখেন এড. ফজলে হালিম লিটন, আরিফুজ্জামান অপু, মো. মাহবুব কায়সার, সিরাজুল হক নান্নু, আসাদুজ্জামান মুরাদ, মেহেদী হাসান দিপু, এড. গোলাম মওলা, নাজমুল হুদা চৌধুরী সাগর, এনামুল হাসান ডায়মন্ড, মো. আবু সাঈদ শেখ, আব্দুর রহমান, আবুল কালাম শিকদার। সভায় উপস্থিত ছিলেন রেহেনা ঈসা, স ম আব্দুর রহমান, শাহজালাল বাবলু, নজরুল ইসলাম বাবু, মহিবুজ্জামান কচি, মুজিবর রহমান, জালু মিয়া, সাদেকুর রহমান সবুজ, শেখ সাদী, নিজামুর রহমান লালু, শাহিনুল ইসলাম পাখি, সাজ্জাদ আহসান পরাগ, বিপ্লবুর রহমান কুদ্দুস, মুর্শিদ কামাল, হাসানুর রশিদ মিরাজ, মিজানুর রহমান মিলটন, শামসুজ্জামান চঞ্চল, নিয়াজ আহমেদ তুহিন, এড. মশিউর রহমান নান্নু, শরিফুল ইসলাম বাবু, ম শ আলম, তরিকুল ইসলাম সোহান, নাজির উদ্দিন নান্নু, আবুল কালাম জিয়া, শেখ ইমাম হোসেন, আহসাউল্লাহ বুলবুল, শেখ জামিরুল ইসলাম, হাসান মেহেদী রিজভী, বদরুল আনাম খান, আফসার উদ্দিন মাস্টার, কাজী আব্দুল লতিফ, শরিফুল আনাম, হাবিবুর রহমান বিশ্বাস, জাকারিয়া লিটন, শাকিল আহমেদ, তরিকুল আলম তুষার, নুরুল ইসলাম লিটন, আল আমিন তালুকদার প্রিন্স, রোকেয়া ফারুক, মাসুদ রেজা, মনিরুজ্জামান মনি, আবু তালেব, শরিফুল ইসলাম, কাজী শফিকুল ইসলাম, মিজানুর রহমান, সাথী, কাকলী, এড. কামরুন্নাহার হেনা, এম এ হাসান প্রমূখ।

সূত্র : প্রেস রিলিজ।

0Shares

Comment here