অর্থনীতিখেলার মাঠেজাতীয়ধর্মকর্মপ্রযুক্তিরুপসী বাংলালাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গনসীমানা পেরিয়েস্বাস্থ্যপাতা

লামায় কুয়েত প্রবাসীর বাড়ি থেকে স্ত্রী ও ২ মেয়ের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা | দিগন্তর | বান্দরবানের লামা পৌরসভায় এক কুয়েত প্রবাসীর বাড়ি থেকে তার স্ত্রী ও দুই মেয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে লামা পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের চম্পাতলী গ্রামের বাড়ির মূল ফটকের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন- কুয়েত প্রবাসী নুর মোহাম্মদের স্ত্রী মাজেদা বেগম (৪০), তার মেয়ে রাফি (১৩) ও ১০ মাস বয়সী নূরী।

জানা যায়, চাম্পাতলী গ্রামের মৃত বাচা মিয়ার ছেলে নুর মোহাম্মদ বর্তমানে কুয়েতে অবস্থান করছেন। শুক্রবার সারাদিন তার পরিবারের লোকজন ঘর থেকে বের না হওয়ায় প্রতিবেশিরা ধারণা করেছিলেন তারা বেড়াতে গেছেন।

কুয়েত প্রবাসী নুর মোহাম্মদের ছোট ভাই আব্দুল খালেক জানান, সারাদিন কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে ও ঘরের মূল ফটকের দরজা বন্ধ থাকায় সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঘরের পিছনের জানালা দিয়ে ঊঁকি দিলে নুর মোহাম্মদের কক্ষের মেঝেতে স্ত্রী মাজেদা বেগম ও খাটের ওপর তার মেয়ে রাফির লাশ দেখতে পাওয়া যায়। বিষয়টি তারা তাৎক্ষণিকভাবে লামা থানা পুলিশকে অবহিত করেন। পরে রাত সাড়ে ৯টার দিকে লামা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার রেজওয়ানুল ইসলাম ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে থানা পুলিশ ঘরের মূল ফটকের তালা ভেঙে লাশগুলো উদ্ধার করেন। এ সময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা জামাল, নির্বাহী অফিসার মো. রেজা রশীদ, পৌরসভা মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

সহকারী পুলিশ সুপার মো. রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা মা ও দুই মেয়েকে হত্যা করে এবং ঘরের আলমিরা ও ড্রেসিং টেবিলের ড্রয়ার ভেঙ্গে মালামাল লুটে নেয়। লাশের প্রাথমিক সুরতহাল করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ তিনটি বান্দরবান জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।

0Shares

Comment here