জাতীয়রাজনীতিলাইফস্টাইলস্বাস্থ্যপাতা

বিদেশ ফেরতদের তিন দিনের কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক

দিগন্তর ডেস্ক : বিদেশ ফেরতদের চাপ সামলাতে না পেরে ১৪ দিনের বদলে ৩ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক করেছে সরকার।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) রাতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনের সভাপতিত্বে আন্তমন্ত্রণালয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সভায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন।

তবে সভায় সিদ্ধান্ত হয়, যাদের করোনার দুটি ভ্যাকসিন নেওয়া আছে এবং করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট আছে, তাদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা লাগবে না। তারা বাড়িতে গিয়ে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকবেন। স্থানীয় প্রশাসন তা নিশ্চিত করবে।

আরও সিদ্ধান্ত হয়, যাদের করোনা ভ্যাকসিনের একটি ডোজ নেয়া আছে এবং করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট রয়েছে, তাদের ৩ দিনের বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হবে। তাদের দেশে প্রবেশের পর করোনা টেস্ট করানো হবে। তাতে নেগেটিভ রিপোর্ট এলে বাকি ১১ দিন বাড়িতে গিয়ে কোয়ারেন্টিনে থাকবেন।

একইসঙ্গে যাদের করোনার টিকা নেয়া নেই কিন্তু করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট রয়েছে, তাদের ৩ দিনের বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হবে। তাদের দেশে প্রবেশের পর করোনা টেস্ট করানো হবে। তাতে নেগেটিভ রিপোর্ট এলে বাকি ১১ দিন বাড়িতে গিয়ে কোয়ারেন্টিনে থাকবেন।

সভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, লকডাউন চলাকালে বিশেষ ফ্লাইটে ফিরতি বাংলাদেশিদের সংখ্যা ধারণার তুলনায় অধিক হওয়ায় বিদ্যমান প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা সম্ভব হচ্ছে না। এসব সীমাবদ্ধতার কথা বিবেচনা করে কেবিনেট সচিবের সভাপতিত্বে সভায় কোয়ারেন্টিন কমানোর সিদ্ধান্ত হয়।

0Shares

Comment here