জাতীয়লাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গনসীমানা পেরিয়ে

বাঁশখালীতে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে নিহত ৫

নিজস্ব প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের বাঁশখালীর গন্ডামারায় শিল্প গ্রুপ এস আলমের মালিকানাধীন কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পুলিশের সংগে সংঘর্ষে ৫ শ্রমিক নিহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন অন্তত ২৩ জন।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) সকালে এই ঘটনা ঘটে। পরে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভেতর আগুন ধরিয়ে দেয়। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিকদের বেতন ভাতা বৃদ্ধিসহ বেশ কয়েকটি দাবি নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে মালিকপক্ষের সাথে অসন্তোষ বিরাজ করছিলো বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিকদের। বকেয়া বেতন পরিশোধসহ ১২ দফা দাবিতে গতকাল শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) থেকে শ্রমিকরা আন্দোলন করলেও মালিকপক্ষ তাতে সাড়া দেয়নি। শনিবার সকালে শ্রমিকরা আবারো আন্দোলন শুরু করে।

পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলে শ্রমিকদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে। এই সময় পুলিশ গুলি চালালে ঘটনাস্থলেই চারজন শ্রমিক নিহত হয়। আহত ১৬ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপতালে পাঠানো হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো এক জনের মৃত্যু হয় বলে জানান চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. ফয়সাল কবীর।

বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্থাপনায় হামলা চালানোর পর পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি ছোড়ে বলে দাবী করেছেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন।

এর আগে ২০১৬ সালে একই বিদ্যুৎ কেন্দ্রে স্থানীয়দের সাথে পুলিশের সংঘর্ষে ৪ জন নিহত হন। কয়লাভিত্তিক ১ হাজার ৩২০ মেগাওয়াটের এ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৭০ শতাংশের মালিকানা চট্টগ্রামের এস আলম গ্রুপের আর ৩০ শতাংশের মালিকানা থাকবে দুটি চীন প্রতিষ্ঠানের।

0Shares

Comment here