জাতীয়ধর্মকর্মলাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গনসীমানা পেরিয়ে

দেশে করোনাভাইরাসে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড

অনলাইন ডেস্ক : দেশে করোনাভাইরাসে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছে। আজ করোনায় আক্রান্ত ৭৪ জন মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত করোনায় মোট মৃত্যু ৯ হাজার ৫২১ জনে দাঁড়ালো। গতকাল মৃতের সংখ্যা ছিল ৬৩ জন। এর আগে, গত মঙ্গলবার করোনায় দেশে এক দিনে সর্বোচ্চ ৬৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

তবে শনাক্তের সংখ্যা কমেছে। একদিনে আরো নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ৬৮৫৪ জন। এতে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৬ লাখ ৬৬ হাজার ১৩২ জন।

বৃহস্পতিবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে অরিতিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনা বিষয়ক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২৪৩টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১২১টি, জিন-এক্সপার্ট ৩৪টি, র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন ৮৮টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৩৩ হাজার ৩২৮ জনের। এর মধ্যে ৩৩ হাজার ১৯৩ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪৯ লাখ ১৫ হাজার ৭৫৮ জনের।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৩৯১ জন। এ পর্যন্ত দেশে মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৬৫ হাজার ৩০ জন।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৭৪ জনের মধ্যে পুরুষ ৪৮ জন আর মহিলা ২৬ জন। এদের মধ্যে ঢাকায় ৪৩, চট্টগ্রামে ১৫, রাজশাহীতে ৩, খুলনায় ৭ এবং বরিশাল বিভাগে ৪ জন করে মারা গেছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালে ৭০ জন এবং বাড়ীতে ৪ জন মারা গেছেন।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে ৪৬, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৬ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৬ জন এবং ৩১ থকে ৪০ বছরের মধ্যে ৫ জন এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। এই পর্যন্ত পুরুষ ৭ হাজার ১৩০ এবং নারী ২ হাজার ৩৯১ জন মারা গেছেন।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়ে গতবছর ৮ মার্চ। সংক্রমণ শুরুর দিকে রোগী শনাক্তের হার কম ছিল। গত মে মাসের মাঝামাঝি থেকে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। মে মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে আগস্টের তৃতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত রোগী শনাক্তের হার ২০ শতাংশের উপরে ছিল। এরপর থেকে শনাক্তের হার কমতে শুরু করে। মাস দুয়েক সংক্রমণ নিম্নমুখী থাকার পর গত নভেম্বরের শুরুর দিক থেকে আবার শনাক্তের হার ঊর্ধ্বমুখী হয়। ডিসেম্বর থেকে সংক্রমণ আবার কমতে শুরু করে। মার্চের শুরু থেকে তা আবার ঊর্ধ্বমুখি হয়েছে।

 

0Shares

Comment here