জাতীয়লাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গনসীমানা পেরিয়ে

মোদির কুশপুত্তলিকা দাহ করার পূর্বেই তা কেড়ে নিলো ছাত্রলীগ

বিশেষ প্রতিনিধি : দেশের স্বাধীনতা সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষের আয়োজনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে প্রতিহত করতে বিক্ষোভ মিছিল ও কুশপুত্তলিকা দাহ কর্মসূচি দেয় বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন। কিন্তু তাদের কর্মসূচি শুরু হওয়ার আগেই নরেন্দ্র মোদির কুশপুত্তলিকা ছিনতাই করেছে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী এমন অভিযোগ ছাত্র ফেডারেশনের নেতা কর্মীদের।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি)তে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্র ফেডারেশনের নেতা কর্মীদের অভিযোগ, মোদির আগমন প্রতিহত করতে সকাল সাড়ে এগারোটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রাজু ভাস্কর্য তাদের পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি ছিলো। তাদের কর্মসূচিকে সামনে রেখে সকাল থেকে তাদের নেতাকর্মীরা টিএসসিতে জড়ো হতে থাকে। এ সময় সকাল ১১টার দিকে টিএসসিতে রাখা মোদির কুশপুত্তলিকা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা কর্মী ছিনতাই করে মোটর সাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় ছাত্র ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা বাধা দিলেও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদেরকে ‘চুপ’ থাকতে বলে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা বলেন, আমাদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচি সামপ্রদায়িক, ফ্যাসিস্ট নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমনের প্রতিবাদে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের পক্ষ থেকে আমরা একটি কুশপুত্তলিকা পোড়ানোর কর্মসূচি দেয়। সে লক্ষ্যে আমরা একটি কুশপুত্তলিকা তৈরি করে টিএসসি গেইটে রাখি। তখন রাজু ভাস্কর্য থেকে ছাত্রলীগের ৩০-৪০জন নেতাকর্মীরা এসে কুশপুত্তলিকা নিয়ে মোটরসাইকেলে করে পালিয়ে যায়। এর মাধ্যমে ছাত্রলীগ ভারতে নরেন্দ্র মোদির করা সকল অপকর্মের সমর্থন দিয়েছে। আমাদের গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে বাধা প্রদান করেছে। যা আমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে তীব্র সাংঘর্ষিক। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

0Shares

Comment here