জাতীয়ধর্মকর্মলাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গন

কসাই মোদিকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না, বাবুনগরী

দিগন্তর ডেস্ক : পৃথিবীর শুরু থেকে যারাই ইসলামের বিরোধীতা করেছে তারা টিকে থাকতে পারেনি উল্লেখ করে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা জুনাইদ আহমদ বাবুনগরী বলেছেন, নমরুদ, ফেরাউন ইসলামের বিরোধীতা করে উৎখাত হয়েছে। ইসলামের দুশমন আবু জাহেল নবীজির বিরোধিতা করতে করতে হারিয়ে গেছে। আবু জাহেলের খালাতো ভাই ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ নবীজিকে নিয়ে ব্যাঙ্গ করেছে, ভারতের মোদি মুসলামানদের গাজরের মতো কেটে কেটে হত্যা করেছে। তারাও টিকতে পারবে না। কসাই মোদিকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

সোমবার (১৫ মার্চ) বিকাল ৩টায় সুনামগঞ্জের দিরাই পৌর শহরের স্টেডিয়াম মাঠে উপজেলা হেফাজতে ইসলাম আয়োজিত শানে রিসালত মহা সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন আল্লামা জুনাইদ আহমদ বাবুনগরী।

এ সময় তিনি আরো বলেন, আমরা মুসলমান, আমাদের সংবিধান ইসলাম, আমাদের নবী হযরত মোহাম্মদ ( সঃ)।আমাদের নবী হচ্ছেন সর্বোত্তম চরিত্রের অধিকারী। সুতরাং কেউ যদি নবীর শানে রিসালত নিয়ে কটুক্তি করে বা নবীর শানে বেয়াদবী করে তার শাস্তি হবে মৃত্যুদন্ড। আমরা সরকারের কাছে এ দাবি জানাচ্ছি । মুসলিম দেশ হিসেবে সরকার কে এ আইন কার্যকর করতে হবে। অন্যতায় হেফাজতে ইসলাম কঠোর অন্দোলনের ডাক দিবে, আর এ আন্দোলনে শরীক সকল মুসলমানদের নৈতিক দায়িত্ব।

হেফাজতের দিরাই উপজেলা সভাপতি শায়েখ আজিজুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং সিনিয়র সহ-সভাপতি মাওলানা নুর উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মুক্তার হোসাইন চৌধুরীর যৌথ পরিচালনায় সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হক বলেন, আল্লামা মামুনুল হক বলেন, পবিত্র কুরআন শরীফে আল্লাহ পাক আমাদের প্রিয় নবীকে সর্বোত্তম চরিত্রের অধিকারী বলেছেন। সুতরাং নবীর শানে রিসালত নিয়ে কেউ কটুক্তি করলে মুসলমানরা সেটা সহ্য করতে পারবে না। প্রকৃত নবী প্রেমীরা তার দাঁত ভাঙা জবাব দিবে।

তিনি বলেন, যে নবী ইসলাম ধর্ম প্রচার করতে গিয়ে তায়েফের ময়দানে রক্ত দিয়েছেন, ওহোদের প্রান্তরে দান্দান মোবারক শহীদ করেছেন, সে নবীর উম্মত হিসেবে আমরা শানে রিসালত কায়েম করতে সকাল উম্মতে মোহাম্মদী ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবো, নবীর শানে রিসালতের কথা বললে নাস্তিক মুরতাদদের চুলকানি শুরু হয়ে যায়। নবীর শানে কটুক্তিকারীদের শাস্তি হবে মৃত্যুদণ্ড। আইন পাশ করতে আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সহ কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।

মামুনুল হক বলেন, হেফাজতে ইসলাম আল্লাহ ছাড়া কাউকে ভয় পায় না, আল্লাহর জমিনে আল্লাহর আইন কায়েম করতে সকল ভীতিকে উপেক্ষা করে ইনশা আল্লাহ এগিয়ে যাবে।

সম্মেলনে এছাড়াও বক্তব্য দেন সংগঠনের নায়েবে আমীল শায়খুল হাদিস নুরুল ইসলাম খান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব জুনাইদ আল-হাবিব, যুগ্ম মহাসচিব নাছির উদ্দিন মুনির, মাওলানা আব্দুল বাছির, সাবেক এমপি মাওলানা শাহিনুর পাশা চৌধুরী, মাওলানা সোয়েব আহমদ, মুফতি সফিকুল আহাদ প্রমূখ।

0Shares

Comment here