জাতীয়লাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গনসীমানা পেরিয়ে

বাউফলে নৌকার দাবীতে মিছিল

বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর বাউফলের আসন্ন চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বর্তমান চেয়ারম্যান এনামুল হক আলকাছ মোল্লা দলীয় মনোনয়ন নৌকা প্রতিক না পাওয়ায় ওই ইউনিয়নের নারী পুরুষ বাউফল সদরে এসে মিছিল করেছে। আজ রবিবার বেলা ১১ টার দিকে নদী বেষ্ঠিত ইউনিয়ন চন্দ্রদ্বীপের কয়েক হাজার নারী পুরুষ ও দলীয় নেতাকর্মীরা নৌকার দাবীতে মিছিল নিয়ে দলীয় কার্যালয় জনতা ভবনে জড়ো হয়। পরে জনতা ভবন থেকে মিছিল নিয়ে সদরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে দলীয় কার্যালয় জনতা ভবনে শেষ হয়।

এরপর সংক্ষিপ্ত সভায় বর্তমান চেয়ারম্যান এনামুল হক আলকাছ মোল্লা বলেন, গত নির্বাচনে আমি নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলাম না, আমি জণগনের প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করি। জনগণ আমাকে নির্বাচিত করে। যাকে নৌকা দেওয়া হয়েছিল তার কোন জনসমর্থন নেই। তাকে যতবার নৌকা দেওয়া হবে ততবার পরাজয় বরন করবে। আমি তৃণমূলের প্রার্থী। মানবতার মা জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে দাবী তিনি যেনো জনগণের দাবী বিবেচনায় নিয়ে তালিকা সংশোধণ করে আমাকে নৌকায় মনোনয়ন দেন।

গত শনিবার বাউফলের ৯টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ। চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বর্তমান চেয়ারম্যান এনামুল হক আলকাছ মোল্লাকে মনোনয়ন না দিয়ে আমির হোসেন হাওলাদারকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। এতে চন্দ্রদ্বীপের জনগণ বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে।

চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সাধারন ভোটারা জানান,গত ২০১৬ সালের নির্বাচনে এনামুল হক আলকাছ মোল্লা জণগনের সর্মথন নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করেন। নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর আমির হোসেন হাওলাদার পরাজিত হয়। গত ৫বছর বর্তমান চেয়ারম্যান চন্দ্রদ্বীপে ব্যাপক উন্নয়নমুলক কাজ করে। এবার নির্বাচনে তৃণমূল আওয়ামীলীগ এনামুল হক আলকাছ মোল্লাকে প্রার্থী মনোনীত করে। কিন্তু কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ তার বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থীর অভিযোগে নৌকা থেকে বঞ্চিত করে।তাঁরা বিশেষ বিবেচনায় এনামুল হক আলকাছ মোল্লাকে নৌকা প্রতিক দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করেন।

মুঃ মুজিবুর রহমান
বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

0Shares

Comment here