জাতীয়রুপসী বাংলালাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গন

যারা এই ভাষণকে নিষিদ্ধ করেছে, তারাও আজ ৭ মার্চ পালন করছে

ফাতেমা বেগম : তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, যারা এই ভাষণকে নিষিদ্ধ করেছে, তারাও আজ এই ৭ মার্চ পালন করছে।

রোববার (৭ মার্চ) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ: বাঙালির মুক্তির সড়ক’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের ৫০তম বার্ষিকীতে সেমিনার আয়োজনের জন্য জাতীয় প্রেসক্লাবকে ধন্যবাদ জানান।

হাছান মাহমুদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। পঁচাত্তরের পর ২১ বছর সেই ভাষণ চালাতে দেয়নি। যারা এই ভাষণকে নিষিদ্ধ করেছে, তারাও আজ এই ৭ মার্চ পালন করছে। জানি না তারা মনে কোন দুরভিসন্ধি নিয়ে ৭ মার্চ পালন করেছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের আবেদন পঞ্চাশ বছর পরও মানুষের মনের মণিকোঠায় অম্লান, উদ্দীপনাময়। ইতিহাস বিকৃতির অপচেষ্টায় কোনো লাভ হয়নি। বঙ্গবন্ধু তার স্বমহিমায় নতুন প্রজন্মের মনের গভীরে প্রোথিত হয়েছেন। বরং ইতিহাসবিকৃতিকারীরাই মুছে গেছে।

তরুণ বয়সের স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, ৭৫ সালের পরপর আমার ছাত্র জীবনে যখন ছাত্রলীগের কর্মী ছিলাম, চট্টগ্রাম শহরে মাইকিংয়ের সময় আমরা ট্যাক্সিতে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বাজাতাম, মানুষ তা শোনার জন্য দাঁড়িয়ে যেতো।

প্রেসক্লাব সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে ও গবেষণা সম্পাদক আইয়ূব ভুইঁয়ার সঞ্চালনায় গণমাধ্যম গবেষক অজিত কুমার সরকারের মূল প্রবন্ধ ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ: বাঙালির মুক্তির সড়ক’ এর ওপর আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, দৈনিক যুগান্তর সম্পাদক সাইফুল আলম, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, স্বপন সাহা, শাহেদ চৌধুরী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান প্রমুখ।

 

0Shares

Comment here