জাতীয়লাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গন

নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে না এ কথা মানতে আমি রাজি না, সিইসি

দিগন্তর ডেস্ক || প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে না, মানুষ ভোট দিচ্ছে না, প্রতিযোগিতামূলক হচ্ছে না এসব কথা মানতে একেবারেই রাজি না আমি।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে যশোরের কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে নির্বাচন কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা জানান।

সিইসি বলেন, মিডিয়াতেই বলা হয় ভোটকেন্দ্রে মানুষের উপচে পড়া ভিড়, নারীরা দীর্ঘ লাইন দিয়ে ভোট দিচ্ছে। পরিবেশ পরিস্থিতি ভালো থাকলেই নারীরা কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেয়। ফলে নির্বাচন সঠিক, প্রতিযোগিতামূলক হচ্ছে।

সিইসি কে এম নূরুল হুদা আরো বলেন, সারা পৃথিবীতে নির্বাচনে কিছু সহিংস ঘটনা ঘটেই থাকে। প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচন হলে মানুষের মধ্যে সহনশীলতার অভাব দেখা দেয়। কিন্তু, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তা দ্রুত প্রশমনও করে।

ফলে, নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে না, মানুষ ভোট দিচ্ছে না, প্রতিযোগিতামূলক হচ্ছে না এসব কথা মানতে একেবারেই রাজি না আমি, বলেন তিনি।

কেশবপুর পৌর নির্বাচন নিয়ে সিইসি বলেন, বর্তমানে নির্বাচনের পরিবেশ খুবই ভালো এবং ঝুঁকি অত্যন্ত কম। ইভিএমে ভোট দিতে ভোটারদের তেমন কোনো অসুবিধা হবে না।

তিনি বলেন, বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটারদের মধ্যে যারা লাইনে থাকবেন তারা ভোট দিতে পারবেন।

এর আগে, সিইসি কে এম নূরুল হুদা কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে নির্বাচন কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের সঙ্গে সভা করেন। যশোর জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এর প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়ার আবুল কাশেম, জেলা পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার, বিভাগীয় নির্বাচন কর্মকর্তা ইউনুছ আলী, যশোর জেলা নির্বাচন অফিসার হুমায়ূন কবির ও কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বজলুর রশিদ জানান, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কেশবপুর পৌরসভার ভোটার সংখ্যা ২০ হাজার ৭২৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ১৮৫ জন ও নারী ভোটার ১০ হাজার ৫৪০ জন। পঞ্চম ধাপের এ নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন করা হবে।

0Shares

Comment here