জাতীয়লাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গনসীমানা পেরিয়েস্বাস্থ্যপাতা

প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মডেল মন্দির নির্মানের চিন্তা ভাবনা করছে সরকার, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

 

এস এম হোসেন রানা : প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মডেল মন্দির নির্মানের চিন্তা ভাবনা করছে সরকার। রবিবার সকালে জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলা পরিষদের হলরুমে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্টের আয়োজনে সমগ্র দেশে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মন্দির ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন ও সংষ্কার প্রকল্পের জামালপুর জেলার কার্যক্রম বিষয়ক অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র। এদেশের বিভিন্ন ধর্মাবলম্বীরা সহাবস্থান করে বিশ্বে বাংলাদেশকে একটি অসম্প্রদায়িক দেশ হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। তিনি বলেন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা অবহেলিত নয়,হিন্দুদের কল্যাণে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মডেল মন্দির নির্মানের চিন্তা ভাবনা করছে সরকার।জামালপুরের হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দের দাবীর প্রেক্ষিতে তিনি জানান জামালপুর জেলা শহরে একটি দর্শণীয় মন্দির নির্মাণ করা হবে।

এছাড়া প্রতিটি উপজেলায় একটি আধুনিক শশ্মানঘাটের নির্মানের প্রকল্প হাতে নেওয়া হচ্ছে বলেও তিনি জানান । মন্দির নির্মাণ ও সংষ্কারে কোন ধরনের অনিয়ম সহ্য করা হবেনা বলেও তিনি উপস্থিত কর্মকর্তাদের সতর্ক করে দেন।

ইসলামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মাজহারুল ইসলামেরস সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের প্রকল্প পরিচালক (অতিঃসচিব) রঞ্জিত কুমার দাস, সমগ্র দেশে সনাতন ধর্মাবলম্বীদেও মন্দির ও ধর্মীয় প্রতিষ্টানের উন্নয়ন ও সংষ্কার প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক (অতিঃসচিব) রণজিৎ কুমার, হিন্দু ধর্মাবলম্বীয় কল্যাণট্রাষ্টের সচিব (উপ সচিব) বিষ্ণু কুমার সরকার, ইসলামপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম জামাল আব্দুন নাছের।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্ট্রের সহঃপরিচালক (মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা) প্রীতি রাণী অধিকারী, ইসলামপুর উপজেলার হিন্দু বৌদ্ধ ও খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদেও সভাপতি শ্রীনারায়ন কর্মকার প্রমুখ

0Shares

Comment here