জাতীয়লাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গনসীমানা পেরিয়ে

সোশ্যাল মিডিয়াকে আইনের আওতায় আনতে চায় সরকার

দিগন্তর ডেস্ক || আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক জানিয়েছেন, কমিটির সভায় দেশে সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে নজরদারি করার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) তারা এ বিষয়ে মনিটরিং করার কথা বলবেন।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) কমিটির পঞ্চম সভা শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করার সময় তিনি এসব তথ্য জানান। সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এ বৈঠক হয়।

মন্ত্রী বলেন, আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে চাই না। কিন্তু আইনের আওতায় থাকা দরকার। অবাধ তথ্য প্রবাহের কারণে জাতীয়ভাবে সমাজ বিভ্রান্তিতে পড়ে। মানবতাবিরোধী, সমাজবিরোধী বক্তব্য নিয়ন্ত্রণ হওয়া জরুরি।

তিনি জানান, সরকার ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটারসহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াকে বাংলাদেশে অফিস খোলা বা অন্তত একজন প্রতিনিধি নিয়োগের কথা বলবে। এসব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম নিয়ে কোনও অভিযোগ উঠলে সরকার যাতে তাদের জানাতে পারে এবং তারা যাতে ব্যবস্থা নিতে পারে সেজন্য এই ব্যবস্থার কথা ভাবা হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, জনগণ আইনশৃঙ্খলা ঠিকভাবে মেনে চলছেন বলেই আমরা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো রাখতে পেরেছি।

তিনি বলেন, বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে হাজার কোটি টাকা আমাদের দেশ থেকে চলে যাচ্ছে। এই বিষয়গুলো এনবিআরকে খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছি আমরা।

মন্ত্রী বলেন, আজকের মিটিংয়ে আমরা এনবিআরকে অনুরোধ করেছি ওই সমস্ত মিডিয়ায় যাদের রেজিস্ট্রেশন নাই, পরিচয় নাই তাদের বিজ্ঞাপন দেয় কেন? কোন কোম্পানি দেয়? কীভাবে দেয়? কীভাবে টাকা যায় তাদের কাছে?- এসব বিষয় যেন এনবিআর তদন্ত করে দেখে।

0Shares

Comment here