খেলার মাঠেজাতীয়লাইফস্টাইলশিক্ষাঙ্গন

তালতলীতে মুজিব বর্ষের দেওয়া ঘর ভেঙ্গে পড়ার ৯ দিন ফুরাতেই ভেঙ্গে পড়লো অন্য ঘর

এসএম আবুল হাসান নিজস্ব প্রতিনিধি. বরগুনার তালতলী উপজেলার ৪ সারিকখালী ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের চাউলাপাড়া এলাকায় মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে দেয়া সরকারি ঘরের পিলার ভেঙ্গে পড়ার অভিযোগ উঠেছে। এলাকার মানুষের অভিযোগ ঘরের নির্মাণাধীন কাজে অনিয়ম থাকায় এমন ঘটনার সৃষ্টি হয়েছে।

সরেজমিন গিয়ে জানা যায়, চাউলাপাড়া এলাকার মৃত্যু শ্রী আনন্দ চন্দ্র শীলের ছেলে শ্রী রতন চন্দ্র শীল (৪০) ভূমিহীন ও গৃহহীন হওয়ায় সরকারি একটি ঘরের বরাদ্দ পান। কিন্তু উক্ত ঘরের কাজ সম্পূর্ণ হওয়ার পূর্বেই ঘরের পিলার ভেঙ্গে পড়ে।
এ ঘটনার ৯ দিন পূর্বে কড়ইবাড়িয়া ইউনিয়নের পশ্চিম বেহালায় নির্মাণাধীন অবস্থায় অপর একটি ঘর এভাবে ভেঙ্গে যায়। বারবার ঘর এবং ঘরের পিলার ভেঙ্গে পড়ায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে আতংকের সৃষ্টি হয়েছে।
ভুক্তভোগী শ্রী রতন চন্দ্র শীল জানায়, ঘরের পিলার ভেঙ্গে পড়ার সময় পিলারের পাশে ২ টি বাচ্চা দাড়িয়েছিলো অল্পের জন্য তারা প্রান বেচে যায়। সরকারের দেয়া এ-ই ঘর আমাদের জন্য সুখ না হয়ে এখন আতংকের হয়ে দাঁড়িয়েছে। তারা মনে করেন যে কোনো সময় এ ঘর ভেঙ্গে পরতে পারে আমাদের উপরে।
এবিষয়ে সারিকখালী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ নিজাম আকন জানায়, ঘরের কাজে অনিয়ম হওয়াতে ঘরের নির্মাণাধীন কাজ শেষ হওয়ার পর্বেই পিলার ভেঙ্গে পড়েছে। আমার এ ওয়ার্ডে ৬ টি ঘরের বরাদ্দ এসেছে প্রতিটি ঘরেই কিছু না কিছু অনিয়ম হয়েছে। এ-র প্রতিটি ঘরই মানুষের জন্য আতংকের হয়ে দাঁড়িয়েছে।
এবিষয়ে তালতলী উপজেলা পি আইও জানায়, এবিষয়ে  আমার কোনো কিছু জানা নেই। আমি আপনাকে কিছু বলতে পারবোনা। ইউএনও স্যারের সাথে যোগাযোগ করুন।
এবিষয়ে তালতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসাদুজ্জামান বলেন, আমি লোক পাঠিয়ে দিচ্ছি তারা আবার সুন্দর করে কাজ করবে। এ-র পূর্বে কড়ইবাড়িয়ায় ঘর ভেঙ্গে পড়ার বিষয়টি তুলে ধরলে তিনি বলেন এ-ই সমস্যাটা শুধু এ-ই ২ ইউনিয়নেই হয়েছে বলে তিনি জানান ।
0Shares

Comment here