প্রযুক্তিরকমারিরাজনীতি

পাথরঘাটা পৌরনির্বাচন এখন টানটান উত্তেজনা

পাথরঘাটা প্রতিনিধি জয়নাল আবেদীন টুকু: দ্বিতীয় দফা পৌরসভার নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হলো আজ। ৫জন মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন। ৫ জন প্রার্থীর মধ্যে ৪ জন ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাঠে নেমেছেন।

আজ রোববার বিকেলে স্বতন্ত্র ,বিএনপি ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা ঐক্যবদ্ধের ঘোষণা দেন। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার প্রার্থী আনোয়ার হোসেন আকন্দ অভিযোগ করেন এই ঐক্যবদ্ধতা এটি তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের একটি অংশ।

জানা গেছে পাথরঘাটা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।
অনেকের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা থাকলেও যাচাই-বাছাই শেষে প্রত্যেকের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন রিটার্নিং ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবরিনা সুলতানা।

ঐক্যবদ্ধ প্রার্থীরা হলো বিএনপির মনোনীত ধানের শীষের প্রতীকের শাহাবুদ্দিন সাকু। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এডভোকেট শাহ আলম মল্লিক।
স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে পাথরঘাটা উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলএবং মাহবুবুর রহমান খান।

এদিকে আওয়ামী লীগ সমর্থিত আনোয়ার হোসেন আকন জানান, এই নির্বাচনে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। প্রতীক পাওয়ার আগেই তারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাঠে নেমেছে। নৌকা মার্কার সমর্থিত নেতা-কর্মীদেরকে বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছে। সরকারের সুষ্ঠু নির্বাচন প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করতে তারা ঐক্যবদ্ধ।

তিনি বলেন গত ১০ বছর ধরে পাথরঘাটা পৌরসভা মেয়র আমার নিবাচনী এলাকায় কাজ করেছি তাই জনগণ আমাকে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করবে।

ঐক্যবদ্ধ প্রার্থীদের মধ্যে মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল বলেন,আমরা ঐক্যবদ্ধ আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে জনগণের ভোট নিশ্চিত করা।
যাতে করে আগামী ৩০ জানুয়ারি ভোট কেন্দ্রে কোন অপশক্তি ভোট করতে না পারে তা প্রতিহত করা । তিনি আরও জানান আওয়ামী লীগের প্রার্থী গ্যারেজ থেকে ৫টি পুরনো মোটর সাইকেল ক্রয় করেছেন।

তারা এসব মোটর সাইকেল পুড়িয়ে দিয়ে আমাদের নেতা কর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে তিনি দাবি করেন।

পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহাবুদ্দিন জানান, পাথরঘাটা পৌরসভা নির্বাচনে যে কোন পরিস্থিতি জন্য আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত রয়েছে। নির্বাচন উপলক্ষে সরকারের যে কোন সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হবে।

এ বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবরিনা সুলতানা জানান, পাথরঘাটা পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে এখন টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে যেকোনো সুপারিশ উপেক্ষা করে নির্বাচন কমিশনের সকল সিদ্ধান্ত মেনে আইন লঙ্ঘন কারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

0Shares

Comment here