অর্থনীতিজাতীয়প্রযুক্তিরকমারিস্বাস্থ্যপাতা

বিবিয়ানা গ্যাসক্ষেত্র : বেতন-বৈষম্যের প্রতিবাদ করায় ৭ শ্রমিক চাকরিচ্যুত

আজিজুর রহমান আজিজ
বিশেষ প্রতিনিধি হবিগঞ্জ :বেতন-ভাতা বৈষম্যের প্রতিবাদ ও বেতন-ভাতা বৃদ্ধির দাবীতে আন্দোলন করায় ৭জন শ্রমিককে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। ঘটনাটি এশিয়া মহাদেশের বৃহত্তম গ্যাস ক্ষেত্র হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলায় অবস্থিত বিবিয়ানা গ্যাস ক্ষেত্রে। আর চাকরিচ্যুত করেছে শেভরনে নিয়ােজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সৈয়দ এটারপ্রাইজ। এ ঘটনায় প্রতিকার চেয়ে হবিগঞ্জের পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযােগ দিয়ে পুনরায় কর্মস্থলে ফিরিয়ে দেয়ার আকুতি জানিয়েছে শ্রমিকরা।

জানা যায়, ২০০৬ সাল হতে বিবিয়ানা গ্যাস ক্ষেত্র (সাউথ-প্যাড) এ বিভিন পদে কর্মরত রয়েছেন আলী হুসেন, জিয়াউল রহমান, পল্টন দেব, কদ্দুছ মিয়া, অসীম আর্চায্য, আকলিছ মিয়া, আজগর আলী। তারা অধিকার আদায় করতে গিয়ে চাকরি হারিয়েছেন বলে অভিযােগ করেছেন।

তারা জানান, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে শ্রমিক দায়িত্ব প্রাপ্ত শেভরনে নিয়ােজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সৈয়দ এটারপ্রাইজের প্রােপাইটর সৈয়দ আলী হায়দার আলমগীরের সাথে বেতন-ভাতা নিয়ে ৫৭জন শ্রমিকের মতবিরােধ দেখা দেয়। এরপর কর্মবিরতি পালন করে ক্ষুব্দ শ্রমিকরা। পরে নানা আশ্বাসের প্রেক্ষিতে শ্রমিকদের কাজে ফেরার আহবান করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সৈয়দ এটারপ্রাইজ।

শ্রমিকদের মধ্যে আলী, জিয়াউল, পল্টন, কদ্দুছ, অসীম, আকলিছ, আজগরসহ ৭জনের কর্মবিরতি ঘােষনা করে ১ মাস কাজে না যাওয়ার জন্য জানায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সৈয়দ এটারপ্রাইজ। মাসের পর মাস অতিবাহিত হলেও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সৈয়দ এটারপ্রাইজের প্রােপাইটর সৈয়দ আলী হায়দার আলমগীরের সাথে শ্রমিকরা যােগাযােগ করেও কর্মস্থলে ফিরতে পারছেন না। এমন পরিস্থিতিতে অনহারে মানবেতর জীবন-যাপন করছে ৭জন শ্রমিকের পরিবার বর্গের সদস্যরা। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিষয়টি নিয়ে বারবার সমাধানের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। অবশেষে প্রতিকার চেয়ে হবিগঞ্জের পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযােগ দিয়েছেন ভুক্তভােগী শ্রমিকরা।

 

এদিকে শ্রমিকদের আনা অভিযােগ, এশিয়া মহাদেশের সর্ববৃহৎ গ্যাস ক্ষেত্র বিবিয়ানা(সাউথ-প্যাড) ২০১৮ সাল শ্রমিকদের বেতন ছিল প্রায় ১৫-২০ হাজার টাকা। ২০১৯ সাল টেন্ডারের মাধ্যমে শ্রমিকদের দায়িত্ব পায় শেভরনে নিয়ােজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সৈয়দ এটারপ্রাইজ। বর্তমানে সৈয়দ এটারপ্রাইজ প্রতিমাসে শ্রমিকদের বেতন প্রদান করে ১০-১১ হাজার টাকা। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সৈয়দ এটারপ্রাইজ দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে প্রায় ১ বছর যাবত শ্রমিকদের বেতন বৈষম্য করে আসছে। এর প্রতিবাদ করলেই শ্রমিকদের ভাগ্য জুটে নানা দুর্ভােগ-দুর্দশা এমনকি চাকুরী হারানাের ভয় । ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান শ্রমিকদের বিভিন্ন সুযােগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত করে। এর জন্য আন্দোলনে নামেন শ্রমিকরা। এনিয়ে শ্রমিকরা হবিগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্যের বরাবর লিখিত অভিযােগ দিয়েছিলেন। শ্রমিকরা সংশ্লিষ্ট কর্তপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

0Shares

Comment here