জাতীয়প্রযুক্তিরাজনীতি

পাটকল খুলে দেয়ার দাবিতে সারাদেশে গণপদযাত্রা ও বিক্ষোভ

আফজাল আহমেদ ।। বন্ধকৃত ২৫টি রাষ্ট্রায়াত্ত পাটকল আধুনিকায়ন করে চালু, কর্মহীন ৫১ হাজার শ্রমিককে স্বপদে কাজে ফিরেয়ে আনা, সরকারী অধিগ্রহণকৃত, হস্তান্তরিত ও ব্যক্তি মালিকানাধীন পাট, সুতা ও বস্ত্রকলের সকল শ্রমিকদের আইনসঙ্গত বকেয়া পাওনা পরিশোধ, ব্যক্তিমালিকানাধীন পাটকল শ্রমিকদের নূন্যতম মজুরী অবিলম্বে ঘোষণার দাবিতে পূর্বঘোষিত কর্মসূচি হিসেবে আজ ১৮ নভেম্বর বুধাবার বিকেল ৪টা থেকে ৫টা সারাদেশের পাটশিল্প এলাকায় শান্তিপূর্ণ গণপদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

খুলনার দৌলতপুর, খালিশপুর এলাকায় গণপদযাত্রা শেষে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পাট-সুতা ও বস্ত্রকল শ্রমিক-কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদের সংগ্রামী আহ্বায়ক প্রবীণ শ্রমিকনেতা সহিদুল্লাহ চৌধুরী, মোঃ আলাউদ্দিন, মোঃ খলিল, সিরাজগঞ্জ কান্দাপাড়ায় শ্রমিকনেতা ইসমাইল হোসেন, ডেমরা সারুলিয়ায় শ্রমিকনেতা কামরুল আহসান, আনোয়ার হোসেন এবং রাজশাহী জুট মিলে আব্দুল হামিদ, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড এলাকায় শ্রমিকনেতা মছিউদ্দৌলা, দিদারুল আলম।

সমাবেশে সহিদুল্লাহ চৌধুরী বলেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত পাটকল খুলে না দেওয়া হবে, ইতিবাচক সমাধান না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত আন্দোলন সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে। এ আন্দোলন শুধু পাটকল শ্রমিকদের নয়। সকল দেশপ্রেমিক জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে পাট, পাটশিল্প, পাটচাষীদের বাঁচাতে হবে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, অবিলম্বে পাটশিল্প খুলে দাও। পাট শুধু সম্পদ নয় বাংলাদেশের নিজস্ব সংস্কৃতির অংশ। দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে পাট ও পাটজাত পণ্যের চাহিদা রয়েছে। যখন এই চাহিদা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে, ঠিক তখনই সরকার রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলো বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে।

আগামী ১২ ডিসেম্বর পাটশিল্প এলাকায় বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। তার পূর্বে বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হবে।

0Shares

Comment here