জাতীয়প্রযুক্তিরাজনীতি

সুলেটে চরম দুর্ভোগ, বিদ্যুৎহীন ২৮ ঘণ্টা,পানির হাহাকার

সাজু আহমেদ সিলেট থেকে : বিদ্যুৎহীন সিলেট। ইতোমধ্যে পেরিয়ে গেছে ২৮ ঘণ্টা। মঙ্গলবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে সিলেটের আখালিয়ার কুমারগাঁও বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে আগুন লাগার পর থেকে এই অবস্থা। আকস্মিক এই বিদ্যুৎহীনতায় দুর্ভোগে পড়েছেন বাসিন্দারা। তবে বিদ্যুৎ প্রবাহ স্বাভাবিক হয়েছে সুনামগঞ্জে।

সিলেটজুড়ে চলছে পানির জন্য হাহাকার। সকাল থেকেই পানির জন্য ছোটাছুটি করছেন তারা। ব্যক্তিগত উদ্যোগেও অনেকে জেনারেটর দিয়ে পানি উত্তোলন করে দিচ্ছেন দুর্ভোগে পড়াদের। এছাড়াও চরম দুর্ভোগে পড়েছেন হাসপাতালের রোগীরা।

আর অধিকাংশ দোকান, বাড়িঘর রাতভর ছিলো অন্ধকারাচ্ছন্ন। ফ্যাক্টরীতে ব্যহত হচ্ছে উৎপাদন।

আজ বুধবার বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড সিলেটের প্রধান প্রকৌশলী (বিক্রয় ও বিতরণ) খন্দকার মোকাম্মেল হোসেন বলেন, গতকাল রাত থেকে প্রায় ৪শ’ কর্মী কাজ করছেন। আজ দুপুরের আগে মেরামত করা কিছু পিলার পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হবে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে জেলার কিছু এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হবে। তবে সিংহভাগ এলাকায় বিদ্যুৎ কখন আসবে এই নিয়ে নিশ্চিত কোন তথ্য দিতে পারেননি তিনি।

পানি সংকটের বিষয়ে সিলেট সিটি করপোরেশনের পানি সরবরাহ শাখার নির্বাহী প্রকৌশলী আলী আকবর জানান, নগরে প্রায় ৮ লাখ বাসিন্দার দৈনিক পানির চাহিদা রয়েছে ৮ কোটি লিটার। এর মধ্যে ৪ থেকে ৫ কোটি লিটার সিটি কর্তৃপক্ষ সরবরাহ করতে পারে। গতকাল বিদ্যুৎকেন্দ্রে আগুন লাগার আগে প্রায় ১ কোটি লিটার পানি সরবরাহ করা গেছে। বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সঠিকভাবে পানি সরবরাহ করা সম্ভব হবে না।

0Shares

Comment here