জাতীয়রকমারিরাজনীতিরুপসী বাংলা

খুলনায় পাটকল শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক নাইম হাসান : খুলনা জেলার দিঘলিয়া উপজেলা পল্লীতে সহকর্মীদের পিটুনিতে মো. রাজন (১৮) নামে এক মিল শ্রমিক নিহত হয়েছে। ২২ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে সকালে উপজেলার চন্দনী মহলের বেড়িবাঁধ এলাকায় রাজনের দুই সহকর্মী তাকে পিটিয়ে আহত করে। নিহত রাজন দিঘলিয়া উপজেলার চন্দনীমহল গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, উপজেলার দেয়াড়াস্থ ব্যক্তি মালিকানাধীন জুট টেক্সটাইল মিলের শ্রমিক রাজনের সঙ্গে একই গ্রামের মিল শ্রমিক দুই ভাই আব্দুর রহিম ও আব্দুর রহমানের মধ্যে মিলের মহিলা শ্রমিকদের উত্ত্যক্ত করাকে কেন্দ্র করে বুধবার রাতে কথা কাটাকাটি হয়। যা মিলের ভিতরেই সমাধান করে দেওয়া হয়।

রাতের ডিউটি শেষে সকালে তারা তিনজন ট্রলারে চন্দনী মহল বেড়িবাঁধ ঘাটে নামেন। রাতের ঘটনার জের ধরে রহিম ও রহমান দু’জনে মিলে চন্দনী রড মিলের কাছে রাজনকে লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকেন। এক পর্যায়ে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় লোকজন রাজনকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। রাজনকে উদ্ধার করতে আসায় মেহেদী নামের এক যুবকও লাঠি পেটার শিকার হয়ে দিঘলিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি হয়।

দিঘলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসানউল্লাহ চৌধুরী বলেন, রাজনের সহকর্মী আব্দুর রহিম ও আব্দুর রহমান তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে রাজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মরদেহ খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ আটক বা মামলা হয়নি।

0Shares

Comment here