অর্থনীতিজাতীয়রাজনীতিস্বাস্থ্যপাতা

কাবিন না করে হুজুর ডেকে বিয়ে: ধর্ষণ মামলায় কারাগারে পুলিশ সদস‌্য

দিগন্তর ডেস্ক:  কোনো কাবিনা না করে শুধু মসজিদের হুজুরের মাধ‌্যমে কয়েক বছর আগে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের এক নারীকে ‘বিয়ে’ করেছিলেন পুলিশ কনস্টেবল। বুধবার সেই নারী ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন ওই পুলিশ সদস‌্যের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার নয়নকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় এক নারী বাদি হয়ে পুলিশ কনস্টেবল আব্দুল কুদ্দুস নয়নের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে। পরে আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে পুলিশ কনস্টেবল আব্দুল কুদ্দুস নয়নকে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল মহসিনের আদালতে হাজির করা হলে আদালত শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের ইন্সপেক্টর আসাদুজ্জামান জানিয়েছেন, বিকেলে এ মামলা আদালতে শুনানির সময় পুলিশ আসামির রিমান্ডের আবেদন করেনি। অপরদিকে আসামি পক্ষের কোন আইনজীবী তার জামিন আবেদন না করায় শুনানি শেষে আদালত আব্দুল কুদ্দুস নয়নকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

বুধবার রাতে বিউটি পার্লারের কর্মরত তিন সন্তানের জননী এক গৃহবধূ বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগ এনে পুলিশ কনস্টেবল নয়নের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ বুধবার দিবাগত রাতে ঢাকা রাজারবাগ পুলিশ লাইনে কলকারখানা বিভাগে কর্মরত অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল আব্দুল কুদ্দুস নয়নকে গ্রেপ্তার করে।

এ ব্যাপারে মামলার বরাত দিয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক জানান, মিজমিজি এলাকায় বিউটি পার্লারে কাজ করে ওই গৃহবধূ। কয়েক বছর আগে প্রেমের সূত্র ধরেই মসজিদের হুজুর ডেকে বিয়ে পড়ানো হয় ওই নারী ও নয়নের। তবে তাদের বিয়ের কোনো কাবিননামা ও বিয়ের রেজিস্ট্রির নথি নেই। বুধবার রাতে তিনি থানায় এসে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। ওই নারী মামলায় অভিযোগ করেন বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে নয়ন। এ মামলায় পুলিশ নয়নকে আটক করে আদালতে নিলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

0Shares

Comment here