অর্থনীতিজাতীয়প্রযুক্তিলাইফস্টাইলস্বাস্থ্যপাতা

রাজধানীতে যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার

আবুল বাশার  || রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানার একতা হাউজিং এলাকায় শিরু মিয়া (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার (৩ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে একতা হাউজিং এলাকার ৮ নম্বর রোডে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিরু মিয়া পরিবার নিয়ে শেখেরটেক এলাকায় ৮ নম্বরে থাকতেন। বিভিন্ন নির্মাণাধীন ভবনে ইট, বালু, রড সরবরাহ করতেন তিনি।

তার স্ত্রী জোসনা বেগম জানান, ‘এক কাজে গাজীপুর গিয়েছিলেন তিনি। কাজ শেষে বাসায় ফিরে আসেন। এরপর তিনি বাসায় কাপড়-চোপড় রেখে আবার বের হয়ে যান। পেছন পেছন আসলে আমাকে বাসায় চলে যেতে বলেন। শরীর খারাপ থাকায় আমি চলে আসি। পরে রাত ৯টার দিকে খবর পাই আমার স্বামীকে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। আমার জানামতে কারও সাথে তার কোনো শত্রুতা ছিল না। আমার স্বামী দীর্ঘদিন ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার হাসুর সাথে রাজনীতি করতেন।

নিহতের ছেলে মো. মামুন বলেন, ‘আমার বাবা কাজ শেষে বাসায় ফেরেন। তিনি বাসায় যাওয়ার সময় তার সঙ্গে আমার শেষবার কথা হয়। এর কিছু সময় পরে একজন আমাকে ফোন দিয়ে জানান, আমার বাবাকে কারা যেন কুপিয়েছে। কিন্তু আমরা ঘটনাস্থলে এসে দেখি তার গলাকাটা অবস্থায় রাস্তার পাশে পড়ে আছে। তার সঙ্গে কারো শত্রুতা আছে বলে আমার জানা নেই।

এ বিষয়ে মোহাম্মদপুর থানার ইন্সপেক্টর (অপারেশন) বলেন, একতা হাউজিং এলাকায় একটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। তবে হত্যার কারণ এখনই বলা যাচ্ছে না। পুলিশ কাজ করছে। এরই মধ্যে ঘটনাস্থলে সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিট এসে তদন্ত শুরু করেছে। সিআইডির কাজ শেষ হলে সুরতহাল প্রতিবেদন করা হবে। ঘটনার সাথে যেই জড়িত থাকুক না কেন তাদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।

মোহাম্মদপুর জোনের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মৃত্যুঞ্জয় দে সজল জানায়, আমরা রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঘটনার খবর জানতে পারি। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে পূর্ব শত্রুতার জেরে এমন হত্যাকাণ্ড হতে পারে। তদন্ত চলছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতরা যেই হোক না কেন তাদেরকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

0Shares

Comment here