জাতীয়রকমারিরাজনীতিস্বাস্থ্যপাতা

বাড়তি ভাড়া নিচ্ছে রাজধানীর অধিকাংশ বাস

আপেল মাহমুদ || করোনাভাইরাস মহামারির কারণে দীর্ঘদিন ধরে অর্ধেক যাত্রী ও ৬০ শতাংশ বেশি ভাড়া নিয়ে চলাচল করতো গণপরিবহন। সাধারণ যাত্রী ও বিভিন্ন সংগঠনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সরকার ১ সেপ্টেম্বর থেকে আবার আগের ভাড়ায় গণপরিবহন চালানোর নির্দেশ দিয়েছে। কিন্তু রাজধানীর অধিকাংশ বাসে সে নির্দেশ মানা হচ্ছে না। আসন সংখ‌্যার চেয়ে বেশি যাত্রী ও বেশি ভাড়া নিচ্ছে অনেক বাস।

শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার, শ্যামলী, মোহাম্মদপুর, মিরপুর ১, ২, ১০ নাম্বার ও এর আশপাশের সড়ক ঘুরে দেখা গেছে, ভাড়া নিয়ে যাত্রীদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা করছে কন্ডাক্টররা।

রাজধানীর মোহাম্মদপুর-উত্তরা রুটের প্রজাপতি পরিবহনের যাত্রী তামিম হোসেন বলেন, একই স্থানে ১৫ মিনিট ধরে দাঁড়িয়ে আছে বাস। সিট ভর্তি না হলে নাকি বাস ছাড়বে না। অথচ বাসের সিট প্রায় ফুল। বাসের হেল্পাররা অতিরিক্ত যাত্রী নেওয়ার ধান্দা করছে। গতকাল মোহাম্মদপুর থেকে ফার্মগেট গিয়েছিলাম। এখান থেকে ফার্মগেটের ভাড়া ১০ টাকা। কিন্তু আমার কাছে নেওয়া হয়েছিল ১৫ টাকা। কেন বেশি টাকা নেওয়া হচ্ছে, তা জানতে চাইলে হেল্পার বলে, যাত্রী কম থাকায় ভাড়া বেশি নিচ্ছি। আমার কথা হচ্ছে, যেহেতু আগের ভাড়ায় বাস চলার কথা, তাহলে কেন বেশি টাকা নেওয়া হবে? সরকারের উচিত এসব মনিটর করা।

রাজধানীর মিরপুর ১০ নম্বরে শিকড় পরিবহনের যাত্রী ইলিয়াস হোসেন বলেন, ‘যাত্রী কম বলে আমাদের কাছ থেকে বেশি ভাড়া নিচ্ছে।

শিকড় পরিবহনের কন্ডাক্টর হান্নান মিয়া বলেন, ‘আজ শুক্রবার যাত্রী কম। কম যাত্রী নিয়ে বাস চালালে খরচই তো উঠবে না।

মিরপুর ১ নম্বর গোল চত্বর এলাকায় আলিফ পরিবহনের এক যাত্রী বলেন, ১ তারিখ থেকে আগের ভাড়ায় বাস চলার কথা। কিন্তু এখনো অনেক বাসেই বেশি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। তাদের স্মরণ করিয়ে দিতে হচ্ছে যে, আগের ভাড়ায় বাস চালাতে বলেছে সরকার।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, আমরা মালিকপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করে আগের ভাড়ায় বাস চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে আগের ভাড়ায় বাস চলছে। কোনো বাসে বেশি ভাড়া নেওয়া হলে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। কয়েকটি ভ্রাম্যমাণ আদালত মাঠে আছে। ট্রাফিক পুলিশকেও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে এসব বিষয় দেখভাল করার জন্য। কেউ আইন অমান্য করলে তারা ব্যবস্থা নিচ্ছেন।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, সড়কে কোনো গণপরিবহন যদি অতিরিক্ত যাত্রী ও বেশি ভাড়া নেয় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আমরা পরিবহন মালিকদের বলেছি, সব নিয়ম মেনে যেন বাস চালান তারা।

 

0Shares

Comment here