খেলার মাঠেজাতীয়রকমারিস্বাস্থ্যপাতা

দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশের চমক, ছিনতাইয়ের ১২ ঘন্টার ভিতরে ছিনতাইকারী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার || সিলেট দক্ষিন সুরমা থানা পুলিশের অভিযানে লিডিং ইউনির্ভাসিটি প্রভাষকের ছিনতাইয়ের ঘটনায় ০৩ জন ছিনতাইকারী গ্রেফতার এবং ০১টি মোবাইল ও ০১টি ল্যাপটপ উদ্ধার।

লিডিং ইউনির্ভাসিটির ব্যবসায় প্রসাশন বিভাগের শিক্ষক, প্রভাষক ফরহাদ হোসেন ঢাকা থেকে সিলেট নগরীর চৌখিদেখি নিজ বাসায় ফেরার পথে গত ২৫ আগষ্ট  ভোর অনুমান ০৪:৩৫ মিনিটের সময় শাহজালাল ব্রীজ পার হওয়া কালে ছিনতাইকারীর কবলে পরেন।

হঠাৎ ০৩ জন ছিনতাইকারী তার রিক্সার গতিরোধ করার সাথে সাথে উনার হাটুর উপর ছোরা দিয়ে আঘাত করে ছিনতাইকারী। এবং ভয়-ভীতি ও জোর পূর্বক ০১টি ল্যাপটপ, ০৩টি মোবাইল সেট, নগদ ৫০০০/- হাজার টাকা ছিনতাই করে পালিয়ে যায়।
উক্ত ঘটনা জানাজানি হলে সোহেল রেজা পিপিএম উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিন) এসএমপি সিলেটর দিকনির্দেশনায়, ও সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ ইসমাইল পিপিএম- বার, ও দক্ষিণ সুরমা থানা অফিসার ইনচার্জ আক্তার হোসেনের পরিচালনায়, দক্ষিন সুরমা থানা টার্মিনাল পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ এএসআই সুবীর চন্দ্র দেবের অভিযানিক নেতৃত্বে ঘটনার সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিনতাইকারী (১) শুভ আহমদ আরিয়ান (২৩), পিতা- হোসেন মিয়া, সাং- সিলাম, মাঝপাড়া, থানা- মোগলাবাজার, জেলা- সিলেট কে নগরীর ভাবনা পয়েন্ট থেকে গ্রেফতার করা হলে তার প্যান্টের পকেটে ছিনতাইকৃত NOKIA মোবাইল সেট পাওয়া যায়। অতঃপর তাকে নিয়ে অভিযান করে নগরীর কোতোয়ালী থানাধীন কানিশাইল ময়না মিয়ার কলোনী হইতে সহযোগী ছিনতাইকারী (২) জনি দাস (২০), পিতা- রাজেন্দ্র দাস, সাং- নতুনপাড়া, থানা- সুনামগঞ্জ সদর, জেলা- সুনামগঞ্জ, বর্তমানে- ময়না মিয়ার কলোনী, কানিশাইল, থানা- কোতোয়ালী, জেলা-সিলেটকে গ্রেফতার করে এবং  তার বাসা থেকে ছিনতাইকৃত HP ELITE ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়। তাদের নিয়ে ধারাবাহিক অভিযানে তাদের অন্য সহযোগী ছিনতাইকারী (৩) রাজু মিয়া (২৫), পিতা- আলিফ মিয়া, সাং- চেচনী, থানা- জগন্নাথপুর, জেলা- সুনামগঞ্জ, বর্তমানে- সাদ্দাম মিয়ার কলোনী, কদমতলী, থানা -দক্ষিন সুরমা, জেলা সিলেটকে অত্র থানাধীন কদমতলী সাদ্দাম হোসেনের কলোনী থেকে গ্রেফতার করা হয়।

উক্ত ঘটনায় ভিকটিম মোঃ ফরহাদ হোসেন(৪০), পিতা- তোফাজ্জল হোসেন, সাং- ১৫৩৯ দক্ষিন দনিয়া থানা- কদমতলী, জেলা-ডিএমপি, ঢাকা বর্তমানে- রংধুন ৮৮/২, চোকিদেখি, থানা- এয়ারপোর্ট, জেলা- সিলেট এর অভিযোগের প্রেক্ষিতে দক্ষিন সুরমা থানার মামলা নং- ২০, তারিখ ২৫/০৮/২০২০খ্রিঃ ধারা- ৩৯৪ পেনাল কোড রুজু হয়। আসামীদের আদালতে সোর্পদ করা হচ্ছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আখতার হোসেন, অফিসার ইনচার্জ, দক্ষিণ সুরমা থানা।

0Shares

Comment here