খেলার মাঠেজাতীয়রকমারিস্বাস্থ্যপাতা

কেশবপুরে ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে যশোর জেলা সিভিল সার্জনের অভিযান

যশোর প্রতিনিধি || যশোর কেশবপুরে আজ (২৬ আগস্ট) বুধবার সকাল থেকে ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান পরিচালিত হয়।অভিযান পরিচালনা করেন যশোর জেলা সিভিল সার্জন মোঃ আবু শাহীন,ডা:মীর আবু মাউদ, কেশবপুর হাসপাতালের টি,এইস,এ ডা: মোঃ আলমগীর,ডা: জহিরুল হক অসীম ও আরো অনেকে।

গত ২২ আগস্ট ২০২০ইং শনিবার যশোর জেলা সিভিল সার্জন এর প্রতিনিধি হিসেবে ডা: মীর আবু মাউদ কেশবপুরে অবস্থিত ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযান পরিচালনা কালে ডা: মীর আবু মাউদ, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালকদের বিভিন্ন বিষয়ে দিক নির্দেশনা দিয়েছিলেন।

আজ ২৬ আগস্ট ২০২০ইং বুধবার যশোর জেলা সিভিল সার্জন ডা: আবু শাহীন নিজে কেশবপুরের সকল ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার পরিদর্শন করেন।মর্ডান ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং কপোতাক্ষ ক্লিনিক এ অনুমোদনের অতিরিক্ত বেড অপসারণ করেন , ক্লিনিকের কাগজপত্র দেখেন ও বিভিন্ন ধরনের দিক নির্দেশনা দেন। কেশবপুরের অন্যান্য ক্লিনিক গুলোও তিনি পরিদর্শন করেন।
একই দিনে কেশবপুরের সকল ডায়াগনস্টিক সেন্টার পরিদর্শন করেন সিভিল সার্জন ডাঃ আবু শাহীন। মনোয়ারা ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও হোসেন প্যাথলজী এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের প্যাথলজী রুম বড় করতে বলেছেন এবং অন্যান্য বিষয়ে দিক নির্দেশনা দেন। এছাড়া পাঁচটি প্যাথলজীকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত প্যাথলজীক্যাল কার্যক্রম বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

অভিযান শেষে সিভিল সার্জন ডা: আবু শাহীন সাংবাদিকদের সাথে আলাপ কালে তিনি বলেন, এ রকম অভিমান যশোর জেলার সব গুলো উপজেলায় হচ্ছে এবং আগামীতেও এ অভিমান চলমান থাকবে। তিনি যে দিক নির্দেশনা দিয়েছেন তা সঠিকভাবে বাস্তবায়ন হচ্ছে কিনা তা দেখার দায়িত্ব দিয়ে যান কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্ব প্রাপ্ত টি.এইচ.এ ডা: মোঃ আলমগীর এর উপর।

0Shares

Comment here