খেলার মাঠেজাতীয়প্রযুক্তিস্বাস্থ্যপাতা

শার্শায় গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলা অনুষ্ঠিত

 

সোহেল রানা শার্শা প্রতিনিধিঃ যশোরে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে সময়ের সাথে সাথে হারাতে বসেছে বাংলার অন্যতম ঐতিহ্যবাহী এ খেলা। একই সাথে হুমকির মুখে পড়েছে এই খেলার সাথে সংশ্লিষ্টদের জীবন-জীবিকাও। তারপরও ঐতিহ্য ধরে রাখতে অনেকে এখনও খেলাটি খেলে থাকেন।

বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী শার্শা উপজেলার ডিহি ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামে গ্রামবাসীর আয়োজনে এ লাঠি খেলা অনুষ্ঠিত হয়। চমৎকার এই আয়োজন দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে হাজির হন শতশত দর্শক।

দর্শনার্থীরা জানান, আবহমান গ্রাম বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় লাঠি খেলা।বর্তমানে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারে মানুষ এখন ভুলতে বসেছে এক সময়ের জনপ্রিয় এই খেলাটি।এ খেলাটি সত্যি মনমুগ্ধকর।গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য লাঠি খেলা ধরে রাখতে এমন আয়োজন যেন প্রতি বছর করা হয়।

বর্ষাকালের বৃষ্টি উপক্ষো করে সাধারণ মানুষ ভিড় করেন এ লাঠিখেলা উপভোগ করতে। বর্ণিল সাজে লাঠি হাতে লাঠিয়ালরা অংশ নেন এ খেলায়।ঢাক ঢোল, কাঁশি আর বাঁশির তালে আনন্দে উল্লাসে মেতে ওঠেন সবাই শিশু- কিশোর থেকে শুরু করে নানা বয়সের মানুষ রং-বেরঙের পোশাক পরে মাঠে নামেন লাঠি খেলতে।

মানুষের এ উচ্ছাস প্রমাণ করে লাঠি খেলা নিয়ে মানুষের আগ্রহ আছে।কিন্তু লাঠি খেলার নতুন দল তৈরি হচ্ছে না বলে তারা জানায়।যে কারণে এখন লাঠি খেলার আয়োজন হয় না নিয়মিত।তবে যারা লাঠি খেলেন,তাদের এ ঐতিহ্য ধরে রাখার আগ্রহ আছে।

সাবেক লাঠি খেলোয়াড় আব্দুল আহাদ বলেন, পূর্ব পুরুষরা এ খেলা করত।আমরা সেই ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে এ লাঠি খেলার আয়োজন করেছি।আগামীতেও খেলানোর চেষ্টা করবো।

0Shares

Comment here