অর্থনীতিখেলার মাঠেজাতীয়লাইফস্টাইলস্বাস্থ্যপাতা

সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে ইসরাইল ও সংযুক্ত আরব আমিরাত ঐতিহাসিক চুক্তি

 

আজিজুর রহমান আজিজ || যুক্তরাস্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনান্ড ট্রাম্প ঘোষণ দিয়ে বলেছেন ইসরায়র ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে রাজি হয়েছে দুই দেশে ঐতিহাসিক শান্তি চুক্তিতে পৌছেচে ট্রাম্প ইসরায়েলের প্রধান মন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এনং আবুধাবি যবুরাজ মোহাম্মদ আল নাহিয়ান এক যৌথ বিবৃতিতে বলেছেন, এ ঐতিহাসিক অগ্রগতি মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রক্রিয়া এগিয়ে নেবে বলে আশা করেন। তারা বিবিসিকে জানিয়েছে চুক্তির আওতায় ইসরাইলে অধরীকৃত পাশ্চিত তীরের বিশাল অংশ নিজেদের দখলে নেয়ার পরিকল্পা বাতিল করবে।

ইসরায়েলের সঈে উপসাগরীয় আরব দেশ গুলোর কোনও কুটনৈতিক সম্পর্ক এখন পর্যন্ত নেই তবে ইরানের আঞ্চলিক প্রভাব নিয়ে উদ্বেগ থাকার কারণে ইসরায়েলের সাতে ঔই দেশ গুলির আনুষ্ঠানিক যোগাযোগ নাই, ইসরায়েলের প্রধান মন্ত্রী সংযুক্ত আরব আমিরাতে রাস্ট্রদুত ইউসেফ আল ওতাইবা এক বিবৃতিতে বলেছেন এ অঞ্চলের জন্য এটি একটি কুটনৈতিক জয়। তিনি আরও বলেন আরব -ইসরায়েলের সম্পর্ক এ এক গুরুত্বপুণ অগ্রগতি এই চুক্তিতে এ অঞ্চলের উত্তেজনা নিরাসন হবে ইতিবাচক পরির্তনের জন্য নবদ্যেম সলঞ্চার হবে। ১৯৪৯ সালে ইসরায়েলের স্বাধীনতা ঘোষনার পর ইসরায়েলের – আরব তৃতীয় চুক্তি এটি এর আগে মিশর ১৯৭৯ সালে এবং জর্ডান ১৯৯৪ সালী চুক্তি করেছিল। বিবিসি জানায় আগামী কয়েক সাপ্তাহের মধ্য ইসরায়েল ও আরব প্রতিনিধিরা বিনিযোগ চুক্তি পর্যটন, সরাসরি বিমান চলাচল , নিরপত্তা জ্বালানি, স্বাস্থ্যসেবা, সংস্কৃতি, পরিবেশ টেলিযোগাযোগ প্রযুক্তি , এবং একো অপরের দেশের দুতাবাস স্তাপন দ্বিপাক্ষিক চুক্তি সুই করবে।

0Shares

Comment here