জাতীয়প্রযুক্তিরকমারিস্বাস্থ্যপাতা

সিলেট দিরাইয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৫ সদস্য নিহত

 

সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম হাসান | সিলেটের ওসমানীনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় দিরাইয়ের একই পরিবারের (৪ জন নিহতের) ঘটনায় এলাকায় বইছে শোকের মাতম, জানা যায় নিহত স্বপন কুমা দাসের বাড়িতে। স্বজনদের কান্নায় এলাকার বাতাস ভারি হয়ে আসছে। ‘ঈদের ছুটিতে বাড়ি না আসলে হয়তো এত বড় দুর্ঘটনা ঘটতো না আজ আসার বদলে কোথায় কোথায় গেলা, আমাদের ছেড়ে এত তাড়াতাড়ি কেন চলে গেলা এভাবে নানা আক্ষেপের সুরে বিলাপ করছেন আত্মীয় স্বজনরা।

আজ শুক্রবার (৩১ জুলাই) দুপুর ১২ টায় সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার চরনারচর ইউনিয়নের শ্যামারচর (বাগহাটি) গ্রামে হরিধন দাসের ছেলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত স্বপন কুমার দাসের বাড়িতে এ দৃশ্য দেখা যায়।

দেখা যায়, পরিবারের লোকদের শান্তনা দিতে আশপাশের বাসিন্দারা জড় হলেও সকলের মাঝেই যেন শোক। স্তব্ধ হয়ে গেছে পুরো এলাকা। হঠাৎ করে একটি দুর্ঘটয়ান যেন পুরো এলাকাকে স্তব্ধ বাকরুদ্ধ করে ফেলেছে ।

এসময় কথা হয় নিহত স্বপন কুমার দাসের বাড়িতে আসা স্বজনদের সাথে। তারা জানান মৌলভীবাজার বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকে কমলগঞ্জ উপজেলায় কর্মরত ছিলেন স্বপন কুমার দাস। স্ত্রী-সন্তান নিয়ে সেখানেই থাকতেন তিনি। ঈদের ছুটিতে স্ত্রী লাভলী রানী দাস ও তিন ছেলেকে নিয়ে প্রাইভেট কারে করে বাড়ি আসছিলেন। এসময় একটি বাসের সাথে তাদেরকে বহনকারী প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন স্বপন কুমার দাস, তাঁর স্ত্রী লাভলী রানী দাস ও জমজ দুই ছেলে শৈবাল দাস, সৌমিত্র দাস,(৮), এসময়য় গুরুতর আহত হন সৌরভ দাস (১২)।

উল্লেখ্য সিলেটের ওসমানীনগর থানা এলাকায় ঢাকা-সিলেটের মহাসড়কের চাঁদপুর নামক স্থানে সিলেটগামী একটি প্রাইভেটকার ও কুমিল্লাগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে ৫ জন নিহত ও একজন আহত হন। নিহতদের মধ্যে স্বপন কুমার দাস, তাঁর স্ত্রী ও দুই সন্তান মিলে (৪) জন ও প্রাইভেট কারের চালক মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা হাশেম মিয়া মারা গেছেন বলে জানা যায়।

0Shares

Comment here