লাইফস্টাইল

জাফলংয়ে বালু ও পাথর উত্তোলনের দাবিতে মানববন্ধন

 

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি: সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার অন্যতম জাফলং পাথর কোয়ারি থেকে পাথর ও বালু উত্তোলনের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রাণের দাবি পাথর কোয়ারী খোলা চাই, ডাল ভাত খেয়ে বাঁচতে চাই। কাজ চাই-ভাত চাই, জাফলং পাথর কোয়ারি সচল চাই। জাফলং নদী থেকে বালু উত্তোলন করতে দাও, ডাল-ভাত খেয়ে বাঁচতে দাও। এরকম নানা স্লোগান সংবলিত প্লেকার্ড নিয়ে বুধবার (২২ জুলাই) দুপুরে জাফলং সেতুর উপর কোয়ারি সংশ্লিষ্ট সহস্রাধিক শ্রমিক, ব্যবসায়ী ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

পূর্ব জাফলং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মিনহাজুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাবেক সভাপতি শাহজাহান সিরাজ’র পরিচালনায় জাফলংয়ে বালু ও পাথর উত্তোলনের দাবিতে অনুষ্ঠিত মানবন্ধন পরবর্তী আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সিলেট জেলা বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি সামসুল আলম।

মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম আল মামুন মনির, তামাবিল চুনাপাথর, পাথর ও কয়লা আমদানিকারক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক সরোয়ার হোসেন ছেদু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাকির হোসেন খাঁন, জাফলং আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ডা. নূরুল ইসলাম, জাফলং যুবলীগের আহ্বায়ক আফাজ উদ্দিন সরকার, আওয়ামী লীগ নেতা ইব্রাহীম খান, সুলতান মাহমুদ, সুলেমান শিকদার, আব্দুল মান্নান, জাফলং বল্লাঘাট পাথর উত্তোলন ও সরবরাহকারি শ্রমিক বহুমুখী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম, গোয়াইনঘাট উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মান্নান, জাফলং ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বিল্লাল হোসেন, জাফলং বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি শাহিন আহমদ, মুখতলা বালু ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুর রউফ (কালু মিয়া), সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান, বাউরভাগ হাওর-বাংলা বাজার ইঞ্জিন নৌকা চালক সমিতির সভাপতি আনোয়ার হোসেন, বাউরভাগ হাওর-বাংলা বাজার পূর্বপার ইঞ্জিন নৌকা চালক সমিতির সভাপতি গহর আলী, বাউরভাগ হাওর উদয়ন তরুন সংঘের সভাপতি আওয়াল মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম, ছাত্রলীগ নেতা আইনুল হক প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে দীর্ঘদিন থেকে জাফলংয়ের শ্রমিকরা বেকার হয়ে পড়েছেন। তার উপর আবার ধাপে ধাপে বন্যা। এ যেন মরার উপর খাঁড়ার ঘা। তাই এই এলাকার শ্রমিকরা যাতে দু’বেলা দুমুঠো খেয়ে পরে বাঁচতে পারে সেদিক বিবেচনা করে বালু পাথর উত্তোলনের অনুমতি দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন তারা।

0Shares

Comment here