জাতীয়প্রযুক্তিরকমারিস্বাস্থ্যপাতা

মুন্সীগঞ্জে বন্যার পানিতে মানবেতর জীবন যাপন

 

গোলাম কিবরিয়া বিশেষ প্রতিনিধি | মুন্সীগঞ্জের লৌহজং-শ্রীনগর ও টঙ্গিবাড়ীর পরিস্তিতির আরো অবনতি হয়েছে। পদ্মার পানি বৃদ্ধি পেয়ে মাওয়ায় বিপদসিমার ৫৮ সেন্টিমিটার ও ভাগ্যকুলে ৬৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহীত হচ্ছে। ফলে প্রতিদিন নতুন নতুন গ্রাম প্লাবিত হচ্ছে। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ৪৫ টি গ্রামের প্রায় ৩০ হাজার মানুষ। পানিবন্দি এসব গ্রামে বিশুদ্ধ পানি সংকটের পাশাপাশি সুকনো খাবারে অভাব দেখা দিয়েছে, নেই পয়নিস্কাশনের ব্যবস্থা ফলে মানবেতর জীবন যাপন করতে হচ্ছে পানিবন্দি মানুষ গুলোকে। খোজ খবর না নেয়া ও ত্রান সহায়তা পৌছে না দেয়া সব নানা অভিযোগ রয়েছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের বিরুদ্ধে। কিছু কিছু নদীর তীরবর্তী এলকায় ভাঙ্গনের ভয়ে ঘর বাড়ী অনন্য এলাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

এদিকে মেঘনা ও ধলেশ্বরী নদীতে পানির চাপ কম লক্ষ করা গেছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহকারী প্রকৌশলী মোঃ রাকিবুল ইসলাম বলেন, গত ৪ দিন ধরে মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলা বন্যা পরিস্তিতির আরো অবনতি হয়েছে। পদ্মার পানির চাপ বেড়ে বিপদসিমার মাওয়ায় ৫৮ ও ভাগ্যকুলে ৬৩ সেন্টিমিটারর উপর দিয়ে প্রবাহীত হচ্ছে। ফলে জেলার লৌহজং-শ্রীনগর ও টঙ্গিবাড়ী উপজেলার নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। তবে মেঘনা ধলেশ্বারী নদীতে পানির চাপ কম রয়েছে।

0Shares

Comment here