জাতীয়প্রযুক্তিরকমারি

এরশাদের স্বপ্ন নিয়ে নতুন দল করছেন ব‌্যারিস্টার দিলারা

আপেল মাহমুদ রাসেল | সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের স্বপ্ন বাস্তবায়নে নতুন দল গঠন করছেন জাতীয় পার্টির সাবেক উপদেষ্টা ও প্রেসিডিয়াম সদস‌্য ব‌্যারিস্টার দিলারা খন্দকার।

ইতিমধ্যে নতুন দলের নামও ঠিক করেছেন তিনি। নতুন দলের নাম রাখা হয়েছে জাতীয় পল্লী পার্টি।

জানা গেছে, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই নতুন দল আত্মপ্রকাশ করবে। দলের অফিস, খসড়া গঠনতন্ত্র, ঘোষণাপত্রসহ প্রয়োজনীয় প্রাথমিক কাজ সম্পন্ন করা হচ্ছে। সারা দেশে সাংগঠনিক কাঠামো ঠিক করে দলের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবেন দিলারা খন্দকার।

এরশাদের স্বপ্ন বাস্তবায়নে রাজনীতি মাঠে আছে তারই হাতে গড়া দল জাতীয় পার্টি। এর বর্তমান নেতৃত্বে রয়েছেন তার ছোটভাই জিএম কাদের। নতুন দল গঠন সম্পর্কে ব‌্যারিস্টার দিলারা বলেন, সাবেক রাষ্ট্রপতির আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছিলাম। জাতীয় পার্টি মানেই এরশাদ। কিন্ত স‌্যার মার‌া যাওয়ার পর জিএম কাদেরসহ বর্তমানে যারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন, তারা স্যারের আদর্শ থেকে দূরে সরে গেছেন। পার্টি আছে কিন্তু আদর্শ নেই। এটি জিএম কাদের জাতীয় পার্টি হয়ে গেছে। স‌্যারের প্রতি ভালোবাসা থেকে তার স্বপ্ন বাস্তবায়নে মাঠে নেমেছি। নতুন দল গঠনের উদ্যোগ নিয়েছি। স‌্যার দেশ ও জাতির জন‌্য নিবেদিত ছিলেন। তাকে অনুসরণ করে মানুষের সেবা করব। স‌্যারের রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করে আধুনিক বাংলাদেশ গড়বো।

তিনি বলেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হয়ে নতুন রাজনীতি উপহার দেবো।

কবে নাগাদ দলের ঘোষণা দেবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, চাইলে এখনই কেন্দ্রীয় কমিটি করতে পারি, কিন্তু তা করব না। জেলা উপজেলায় কমিটি, দলের অফিস, ঘোষণাপত্র, মূলনীতিসহ সবকিছু করে তারপর ঘোষণা দেবো।

জাতীয় পল্লী পার্টি—এ নাম কেন জানতে চাইলে দিলারা বলেন, মুহম্মদ এরশাদের পল্লীবন্ধু উপাধির সঙ্গে মিল রেখে জাতীয় পল্লী পার্টি রেখেছি।

প্রবীণ আইনজীবী ব‌্যারিস্টার রফিকুল হকের জুনিয়র হিসেবে তারই উৎসাহে ২০০৮ সালে যোগ দেন জাতীয় পার্টিতে। অল্পদিনেই পার্টির চেয়ারম‌্যানের আস্থাভাজনে পরিণত হন। প্রাথমিক সদস‌্য পদ, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কিমিটির সদস‌্য তারপর দলের যুগ্ম মহাসচিব করা হয় তাকে।

জাতীয় পার্টির এমপি ড. টিআই এম ফজলে রাব্বি অসুস্থ ও নিস্ক্রিয় হলে এরশাদের নির্দেশে গাইবান্ধা-৩ (পলাশবাড়ি সাদুল্লাপুর) আসনে জাপাকে সংঘঠিত কর‌ার দায়িত্ব নেন দিলারা। অল্প সময়ে নজর কাড়েন এরশাদের। একাধিবার তার দলীয় কর্মসূচিতেও যোগ দেন এরশাদ। একপর্যায়ে রানিং এমপি ফজলে রাব্বিকে ছিটকে ফেলে দশম সংসদ নির্বাচনে লাঙল এর টিকিট পান দিলারা। নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলেন তিনি, কিন্তু নির্বাচন প্রত‌্যাহারের ঘোষণা দিলে তিনিও সরে দাঁড়ান। একাদশ সংসদ নির্বাচনেও তিনি অংশ নেন। কিন্তু এমপি হতে পারেননি।

২০১৬ সালে দিলারাকে এরশাদ রাজনৈতিক উপদেষ্টা করেন। কিছুদিন পর প্রেসিডিয়াম সদস‌্য নির্বাচিত করেন। এরশাদের মৃত‌্যুর আগ পর্যন্ত তিনি উপদেষ্টা ও দলের প্রেসিডিয়াম সদস‌্য ছিলেন। এরশাদের মৃত‌্যুর পর নতুন কমিটিতে তাকে কোন পদে আর রাখা হয়নি।

ব‌্যারিস্টার দিলারার অভিযোগ, এরশাদের আস্থাভাজন ও ঘনিষ্ঠ হওয়ায় তাকে দল থেকে মাইনাস করা হয়েছে। প্রতিহিংসায় যে দলে ত্যাগী নেতাদের বাদ দেওয়া হয়, সে দল এরশাদের স্বপ্ন কীভাবে বাস্তবায়ন করবে— এমন ক্ষোভ থেকে নতুন দল গঠন করছেন তিনি।

দিলারার নতুন দল গঠন সম্পর্কে জাতীয় পার্টির চেয়ারম‌্যান জিএম কাদের বলেন, তার অভিযোগ সত‌্য নয়। মূলত তিনি এখন জাতীয় পার্টি করেন না। উপ-নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছিলেন। বোর্ডে সাক্ষাৎকারও দেন। যে কেউ নতুন দল গঠন করতে পারেন।

0Shares

Comment here