খেলার মাঠেধর্মকর্মলাইফস্টাইল

অবৈধ গ্যাস সংযোগে বিস্ফোরণ, বাবা-ছেলের মৃত্যুর অভিযোগ

 

আশুলিয়া প্রতিনিধি : আশুলিয়ায় একটি বাড়িতে অবৈধ গ্যাস সংযোগে চুলা জ্বালাতে গিয়ে বিস্ফোরণে বাবা ও ছেলের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রোববার (৫ জুলাই) ঘটনাটি ঘটলেও ওই বাড়িওয়ালা গোপন করে রেখেছিল। পরে বুধবার (৮ জুলাই) আজ এলাকাবাসী বিষয়টি জানতে পারে।

এলাকাবাসী জানায়, আশুলিয়ার দুর্গাপুর পূর্বচালা এলাকায় মামুন নামের এক বাড়িওয়ালা তার বাড়িতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ নিয়ে কয়েকটি রুম ভাড়া দেন। গত রোববার সকালে ওই বাড়ির একটি রুমের নারী ভাড়াটিয়া গ্যাসের চুলা জ্বালাতে যায়। এ সময় বিস্ফোরণে রুমের মধ্যে আগুন ধরে যায়। এতে আগুনে দগ্ধ হয়ে ওই নারী, তার স্বামী ও তাদের ছয় বছরের ছেলে। পরে তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সাভারের এনাম মেডিক্যাল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাবা ও ছেলের মৃত্যু হয়। পরে ওই বাড়িওয়ালা বিষয়টি গোপন করে পুলিশকে না জানিয়ে তাদের মৃতদেহ ময়মনসিংহে জেলায় পাঠিয়ে দেন। পরে বিষয়টি আজ এলাকাবাসী আশুলিয়া থানা পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনকে জানায়।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপু বলেন, অবৈধ গ্যাস সংযোগের চুলা জ্বালাতে গিয়ে বিস্ফোরণে বাবা-ছেলের মৃত্যুর বিষয়টি শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তারা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেবে।

এদিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই নারী ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে। তবে বাড়িওয়ালা নিহত বাবা ও ছেলের নাম বলেনি।

এলাকাবাসীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দেশে করোনাভাইরাসের প্রকোপ থাকায় আশুলিয়ার, কাঠগড়া, দুর্গাপুর, বাংলাবাজার, সদরপুর, খেজুরবাগানসহ বিভিন্ন এলাকায় একটি প্রভাবশালী চক্র নিম্নমানের পাইপের মাধ্যমে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। কিন্তু প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

এ বিষয়ে সাভার তিতাস গ্যাস অফিসের কর্মকর্তারা, করোনাভাইরাসের সুযোগ নিয়ে যারা আশুলিয়া এলাকায় অবৈধ গ্যাস দিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়ের করা হবে।

0Shares

Comment here