জাতীয়স্বাস্থ্যপাতা

ঈদে ৯৫ শতাংশ শপিংমলই বন্ধ থাকবে

দিগন্তর রিপোর্ট : করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির মধ্যেও আগামী ১০ মে থেকে সরকার দোকানপাট-শপিংমল খোলার অনুমতি দেয়ার পরও জনস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনায় রাজধানীর বেশিরভাগ আভিজাত শপিংমল-মার্কেট খুলবে না। সারা দেশের প্রায় ৯৫ শতাংশ শপিংমল বন্ধ থাকবে।

সর্বপ্রথম গত বুধবার যমুনা ফিউচার পার্ক না খোলার সিদ্ধান্ত নেয় যমুনা গ্রুপ কর্তৃপক্ষ। এরপরই বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্স বন্ধ রাখারও ঘোষণা আসে। এরপর বায়তুল মোকাররম মার্কেট ও নিউমার্কেট না খোলার সিদ্ধান্ত নেয় ব্যবসায়ীরা। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্র ও শনিবার রাজধানীর অন্য সব মার্কেট না খোলার ঘোষণা দেন দোকান মালিক সমিতির নেতারা।

শনিবার (৯ মে) বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ যাতে না বাড়ে সেজন্য সারা দেশে প্রায় ৯৫ শতাংশ শপিংমল বন্ধ থাকবে। এ ছাড়া ঝুঁকি এড়াতে অন্যান্য দোকানপাটও বন্ধ থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে।

শনিবার পর্যন্ত যেসব মার্কেট না খোলার খবর পাওয়া গেছে, সেগুলো হলো-যমুনা ফিউচার পার্ক, বসুন্ধরা সিটি, ইস্টার্ন প্লাজা, মোতালেব প্লাজা, পলওয়েল মার্কেট, মৌচাক ও আনারকলি মার্কেট, নিউমার্কেট, গাউছিয়া মার্কেট, চাঁদনি চক, চিশতিয়া মার্কেট, নিউ চিশতিয়া মার্কেট, ইসমাইল ম্যানশন, ইস্টার্ন মল্লিকা, চাঁদনি চক, নূর ম্যানশন, গোল্ডেন প্লাজা, গ্রিন স্মরণিকা, ধানমণ্ডি হকার্স মার্কেট, প্রিয়াঙ্গন মার্কেট, নূরানী ম্যানশন, এলিফ্যান্ট রোডের আশপাশের মার্কেট, বঙ্গবাজার কমপ্লেক্স, এনেক্সকো টাওয়ার, মহানগর কমপ্লেক্স, ঢাকা ট্রেড সেন্টার, ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট, সুন্দরবন সুপার মার্কেট, নগর প্লাজা, সিটি প্লাজা, মিরপুর এলাকার শপিংমল।

এদিকে রামপুরা, শান্তিনগর, খিলগাঁও ও মিরপুর এলাকায় রাস্তার পাশে জুতা, জামা-কাপড়, ইলেকট্রনিক্স, টেইলার্সসহ অন্য সব দোকানপাট খুলতে দেখা গেছে। তবে বড় পরিসরে মার্কেট খুলতে দেখা যায়নি।

এছাড়া ঢাকার বাইরে সিলেট, চট্টগ্রাম কুমিল্লা, খুলনা, রাজশাহীসহ প্রায় সব জেলা শহরে শপিংমল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

এদিকে করোনাভাইরাসের মধ্যেও কেনাকাটা করতে আগ্রহী ক্রেতাদের নিজ এলাকার ২ কিলোমিটারের মধ্যের শপিংমলে কেনাকাটার নির্দেশনা দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। সঙ্গে প্রমাণপত্র হিসেবে এনআইডি/পাসপোর্ট/বিদ্যুৎ বিলের কপি রাখতে বলা হয়েছে।

গত ৪ মে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির মধ্যেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে দোকানপাট ও শপিংমল আগামী ১০ মে থেকে খুলে দেয়ার কথা জানায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

0Shares

Comment here