খেলার মাঠেজাতীয়ধর্মকর্ম

মুন্সীগঞ্জে করোনা ভাইরাসকে কেন্দ্র করে দ্রব্য মূল্যের দাম বেশী রাখায় ৫ দোকানীকে জরিমানা

গোলাম কিবরিয়া রনিঃ করনা ভাইরাসের আতংককে কাজে লাগিয়ে অসাধু ব্যবসায়ীদের দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি রোধকল্পে দিনব্যাপী মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হচ্ছে মুন্সীগঞ্জে।

এরই ধারাবাহিকতায় মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন কাঁচাবাজরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৫টি দোকানকে ৯৫ হাজার টাকা জরিমানা এবং একটি পাইকারী চালের দোকান সিলগানা করা হয়েছে।

শনিবার (২১ মার্চ) সকাল থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন হাট বাজারে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের নেতৃত্বে অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেনসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা বৃন্দ।

মুন্সীগঞ্জ বাজার ও রিকাবী বাজারের সকল ব্যবসায়ীদের পিঁয়াজের দাম ৪৫টাকা কেজি নির্ধারণ করেম বিক্রির আদেশ প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ।

এ সময় প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বেশি রাখায় হারুন স্টোরকে ৩০ হাজার টাকা, ফুয়াদ স্টোরকে ৫ হাজার টাকা, নাজির রাইস স্টোরকে ৫ হাজার টাকাসহ তিনটি দোকানে মোট ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অপরদিকে মুন্সীরহাট বাজারের পাইকারী চালের দোকান করিম স্টোরকে সিলগালা করে দেয়া হয়। বাজার গুলোর প্রতিটা দোকানীকে সর্তক করে দেয়া হয়েছে।

বিকাল সাড়ে ৫টার সময় রিকাবী বাজার ও মিরকাদিম বাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়েছে সেখানে দুইজন দোকানের মালিককে ৫৫,০০০টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

করোনা ভাইরাসকে কেন্দ্র করে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী, অতিরিক্ত দ্রব্যমূল্য রাখায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসক, মুন্সীগঞ্জ মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার এবং পুলিশ সুপার, মুন্সীগঞ্জ আব্দুল মোমেন পিপিএম। মুন্সীগঞ্জ সদর ও মুন্সীরহাট বাজার মনিটরিং করাকালীন সময়ে বাজার স্থিতিশীল রাখার বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলেন এবং অতিরিক্ত দ্রব্যমূল্য রাখায় অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ফারাশিদ বিন এনাম, ইলিয়াস সিকদার, মো: আশরাফুল কবীরের যৌথ অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তারা মুন্সীগঞ্জ বাজার ও রিকাবী বাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেছেন।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো: আশরাফুল কবীর জানান, মুন্সীগঞ্জ বাজারে ৩জন দোকানদারকে ৩৫হাজার ও রিকাবী বাজারের দুইজন দোকানদারকে ৫৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। মুন্সীগঞ্জ বাজার ও রিকাবী বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে পিয়াজের দাম ৪৫ টাকা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে।

তিনি আরো জানান, একজন প্রবাসী কোয়ারেন্টাইন না মানার কারণে তাকে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। আরো দুইজন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে বাধ্য করা হয়েছে।

0Shares

Comment here