খেলার মাঠেজাতীয়ধর্মকর্ম

যশোর করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বিশেষ সর্তকতা জারী

মীর ফারুক যশোর প্রতিনিধিঃকরোনা বর্তমান বিশ্বে অাতংকের একটি নাম।বিভিন্ন দেশে প্রতিদিন ভাইরাসটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে সংক্রমণ হচ্ছে নতুন নতুন মানুষ।
বাংলাদেশে এই পর্যন্ত ২০জন করোনা ভাইরাস আত্রুান্ত রোগী সনাক্ত করা গেছে। এক জন মৃত্য বরণ করেছে।
সারাদেশের ন্যায় যশোরে সাধারন মানুষের মাঝে আতংক লক্ষ্য করা যাচ্ছে।এই কারনে যশোর জেলা প্রশাসক পক্ষ থেকে সর্ব্বচ সর্তকতা জারী করা হয়েছে,নেওয়া হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা।

যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন জানান,নতুন করে ৩৫ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।এদের মধ্যে বেশির ভাগই বিদেশ থেকে আসা এবং তাদের সাহচর্যে থাকা লোকজন।এ নিয়ে যশোরে মোট ৫৯ জনকে ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ রাখা হলো।

যশোর জেলা প্রশাসক করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও সচেতনতা সর্ম্পকে জরুরী মিনিং করেছে।সভা থেকে জেলার সকল সরকারী হাসপাতাল ও ক্লিনিক গুলোতে করোনা রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড সেবিকা ও রোগী পরিবহনে পৃথক অ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে।যাতে করোনা আত্রুান্ত রোগী থেকে ভাইরাসটি ছড়িয়ে না পড়ে।

মানুষকে সচেতন করার জন্য লিফলেট বিতরণ ও মাইকিং করা হচ্ছে বিভিন্ন বাজারে।
অসাধু ব্যবসায়ীরা যাতে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য নিয়ে বাজার অস্হিতিশীল করতে না পারে এজন্য ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করছে স্থানীয় প্রশাসন।বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে মুল্য বৃদ্ধি জন্য জরিমানা করা হয়েছে,এরপরও বাজারে পণ্যদ্রব্যর দাম বেড়েই চলছে।

দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোলে দিয়ে ভারত যাওয়া আসা সাময়িক ভাবে বন্ধ করা হয়েছে।জারী করা হয়েছে সর্ব্বচ সর্তকতা। বসানো হয়েছে অতিরিক্ত হ্যান্ড থার্মাল স্ক্যানার মেশিন।

যাতে ভারত থেকে বা বিদেশী কোন যাত্রী করোনা ভাইসার পরিক্ষা ছাড়া দেশে প্রবেশ করতে না পারে এজন্য বেনাপোল বন্দরে জনবল  বৃদ্ধি করা হয়েছে। ভারত থেকে আসা পণ্যবাহী ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভার ও হেলপারদেন হ্যান্ড থার্মাল স্ক্যানারের মাধ্যমে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

যশোর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ জানান, করোনা ভাইরাস নিয়ে আমরা সর্ব্বচ সর্তক অবস্থান নিয়েছি।ভাইরাসটি নিয়ে কেউ যাতে গুজব বা বাজার পণ্য দাম বাড়াতে না পারে এজন্য স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।গণ সচেতনতা  জন্য সাধারন মানুষের মাঝে লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে।জেলার সকল হাসপাতাল ও ক্লিনিক গুলোকে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।তিনি আরো বলেন করোনা নিয়ে
আংতক না হয়ে সচেনত হয়ে নিয়ম কানুন মেনে চলার জন্য সবাইকে অনুরোধ করেন।

প্রেরক মীর ফারুক যশোর থেকে

0Shares

Comment here