খেলার মাঠেজাতীয়ধর্মকর্ম

ভালুকায় যৌন হয়রানির অভিযোগে এক শিক্ষক আটক

সাইফুল ইসলাম ময়মনসিংহ জেলা প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহে  ভালুকা উপজেলার ডাকাতিয়া ইউনিয়নের বড়চালা নছিরন নহর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগে বৃহস্পতিবার সকালে আটক করেছে পুলিশ।
জানা যায়, বড়চালা নছিরন নহর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান ১৫ই ফেব্রুয়ারি স্কুল চলাকালীন সময়ে ৫ম শ্রেণির ৩জন (শিমু, রেশমি, সুমিতা) শিক্ষার্থীকে মিথ্যা বলে স্কুল ভবনের ছাদে ডেকে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে ছাদের একটি ভবনে তাদের ভয় ভীতি দেখিয়ে পর্যায়ক্রমে যৌন হয়রানি করে। ঘটনাটি স্কুল ছুটির পর শিক্ষার্থীরা অভিভাবকদের জানালে, তাৎক্ষণিকভাবে তারা বিষয়টি স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতিকে জানান। স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে গত ১৮ই ফেব্রুয়ারি  উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
পরে শিক্ষা অফিসার, স্থানীয় ইউপি মেম্বার, অভিভাবক ও অন্যান্য সহকারী শিক্ষকরা বসলে প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পান। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। উল্লেখ্য এর আগেও হাবিবুর রহমান একই ইউনিয়নের দক্ষিণ ডাকাতিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও খানপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে থাকাকালীন থাকা অবস্থায় অনৈতিক কর্মকান্ডের জন্য বদলী হন।
এ ব্যাপারে ছাত্রীর মা পারভিন আক্তার কান্না জড়িত কন্ঠে জানান, আমার প্রায়ই স্কুলে যেতে চাইত না। অন্য স্কুলে ভর্তি হওয়ার জন্য আমাকে বলত। বিষয়টি আমি বুঝতে পারতাম না। এই ঘটনাটি প্রকাশ্যে এলে এখন বুঝতে পারছি মেয়ে কি কারণে স্কুলে যেত চাইত না। একই কথা আরেক ছাত্রীর মায়ের তার বলেন আমরা ঐ লম্পট শিক্ষকের কঠিন শাস্তির দাবী জানাই।
সভাপতি নজরুল ইসলাম জানান, ঐ শিক্ষকের কারণে স্কুলে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কমে গেছে। সে দীর্ঘদিন যাবত লোক চক্ষুর অন্তরালে এই রকম নেক্কার জনক কাজ করত। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার জুয়েল আশরাফ জানান, এই ঘটনায় তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শফিউল মিয়া জানান, ঘটনাটি শুনেছি, শিক্ষা অফিসারকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে, তদন্ত শেষ হলে ঐ শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাইনুদ্দিন জানান, এই  শিক্ষককে আটক করা হয়েছে, নারী ও শিশু আইনে ধর্ষনের চেষ্টা মামলা দায়ের করা হয়েছে ।

0Shares

Comment here