খেলার মাঠেজাতীয়ধর্মকর্ম

পাবনায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১২ মামলার আসামি নিহত

ডেস্করিপোর্টঃ পাবনায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হাব্বান মণ্ডল(৫০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

বুধবার দিনগত রাত ২টার দিকে সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নের চরশিবরামপুর স্লুইচগেটসংলগ্ন বাবুলের কলাবাগানে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, নিহত হাব্বান সশস্ত্র সস্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, বিস্ফোরক, মাদকদ্রব্য ও খুনসহ ১২টি মামলা রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে। নিহত হাব্বান সদর উপজেলার দক্ষিণ রামচন্দ্রপুর মণ্ডলপাড়া গ্রামের মৃত হায়দার আলীর ছেলে।

পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বিপিএম, পিপিএম জানান, সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নের চরশিবরামপুর স্লুইচগেটসংলগ্ন এলাকায় একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদ পাওয়া যায়।

এর ভিত্তিতে বুধবার দিনগত রাত ২টার দিকে পুলিশের বিশেষ দল সেখানে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কলাবাগানে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা তাদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকে। এ সময় পুলিশ সদস্যরাও শটগান দিয়ে পাল্টা গুলি করতে থাকে।

উভয়পক্ষের মধ্যে ১৫-২০ মিনিট ধরে গোলাগুলি চলে।

খবর পেয়ে পাবনা সদর থানার অন্যান্য টহল দলও ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। এ সময় অবস্থা বেগতিক দেখে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা গুলি করতে করতে পালিয়ে যায়। গোলাগুলি শেষ হওয়ার পর কলাবাগানে তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাব্বান মণ্ডলকে উদ্ধার করা হয়।

গোলাগুলির সময় চার পুলিশ সদস্যও আহত হন। গুরুতর আহত সন্ত্রাসী হাব্বানসহ আহত পুলিশ সদস্যদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক হাব্বানকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি রিভলবার, পাঁচ রাউন্ড রিভলবারের তাজাগুলি, পিস্তলের দুটি গুলির খোসা উদ্ধার করে।

0Shares

Comment here