খেলার মাঠেজাতীয়ধর্মকর্ম

একজন জনবান্ধব ও প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে সফল নেত্রী সেলিমা আহমাদ মেরি (এমপি)

হোমনা প্রতিনিধিঃ জনবান্ধব ও প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে খুব সহজে একজন সফল জনপ্রিয় জননেত্রী ও জনপ্রতিনিধি হিসেবে সকল শ্রেনীর পেশার ও জনসাধারনের মনের গহীনে স্থান করে নিয়েছেন কুমিল্লা-২ হোমনা-তিতাস আসনের সংসদ সদস্য সেলিমা আহমাদ মেরি (এমপি)।

তিনি একজন সংসদ সদস্য হওয়ার পরও নিজেকে সাধারন মানুষের সেবক হিসেবেই পরিচয় দিতে বেশী স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন। তিনি তার ছোটবেলা থেকেই সমাজ ও সমাজের মানুষের কল্যাণে নিবেদিত করেছিলেন নিজেকে। তাই সমাজের মানুষও তাকে নির্বাচিত করেছেন জনপ্রতিনিধি হিসেবে ও বসিয়েছেন সংসদ সদস্যের আসনে। তিনিও মানুষের ভালোবাসা আর সমর্থনের যোগ্য প্রতিদান দিতে ভুল করেননি, দিনরাত সমাজ এবং সমাজের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন, যায়গা করে নিয়েছেন মানুষের অন্তরে। তিনি তার নির্বাচিত আসন হোমনা-তিতাসকে উন্নয়নের মাষ্টার প্ল্যানের আওতায় এনে এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করেছেন। শিক্ষা-দিক্ষায় পিছিয়ে পড়া হোমনা-তিতাস বাসীকে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে ইতিমধ্যে বিভিন্ন স্থানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করা, যোগাযোগ ক্ষেত্রে রাস্তা-ঘাট মেরামত, নতুন রাস্তা ও কালভার্ট নির্মান, তথ্য প্রযুক্তির জ্ঞানের বিকাশ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ-মাদ্রাসাসহ অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক উন্নয়ন করেন। এছাড়া সমাজে অপরাধ, মাদক নির্মূল, ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সেলিমা আহমাদ মেরি সর্বশ্রেনীর মানুষের মাঝে ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন।

 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর বিগত ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির হেভিওয়েট প্রার্থী ডক্টর খন্দকার মোশারফ হোসেনকে বিপুল ভোটে পরাজিত করে কুমিল্লা-২ হোমনা-তিতাস আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন নিটল-নিলয় গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান,বাংলাদেশ ওমেন্স চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সেলিমা আহমাদ মেরি (সিআইপি)। তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকার উন্নয়নে মহা পরিকল্পনা গ্রহণ করেন। তার গৃহিত পরিকল্পনার আলোকে তিনি একের পর এক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন।

তার নির্বাচনকালীন প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রায় ৬০% কাজ ইতি মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে বাকি ৪০% কাজ চলমান।  তিনি কোন সেবায় উন্নয়নে কখনো দলমত চিন্তা করেননি। এলাকার উন্নয়নের জন্য দলমতের উর্ধে উঠে সমান ভাবে কাজ করছেন।

এলাকাবাসির সুত্রে জানা যায়,হোমনা-তিতাসে বিভিন্নি শ্রেনীর মানুষের বসবাস তাদের মধ্যে মুসলিম, হিন্দু, খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ও রয়েছেন। সকলের সন্য সমান ভাবে কাজ করে তিনি সর্বশ্রেনীর মানুষের মনে একজন ভাল মানুষ হিসেবে স্থান করে নিয়েছেন।

0Shares

Comment here