খেলার মাঠেজাতীয়লাইফস্টাইল

চট্রগ্রাম লোহাগাড়ায় অবৈধভাবে মাটি কেটে বিক্রি, ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে হামলা!

 

বিশেষ প্রতিনিধিঃ প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তার সুযোগে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার ০২ নম্বর আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের ০৭ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব হাজারবিঘা টংকাবতী নদীর আশেপাশের ফসলি জমির মাটি ও খাল কেটে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের হিড়িক, মজুদ ও পাচারের অভিযোগের খবর পাওয়া গেছে। লোহাগড়া উপজেলা যুবলীগ নেতা মোঃ বাদশা খালেদ তার প্রভাব খাটিয়ে এ ধরনের কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন লোহাগাড়া থানা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি (আমেরিকা প্রবাসী) বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ দেলোয়ার হোসেন এবং ঐ সকল জমির মালিকেরা।

স্থানীয়দের আশঙ্কা যেভাবে মাটি কাটা শুরু হয়েছে তাতে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই শত শত বিঘা জমি অনাবাদি হয়ে পড়বে। পাশাপাশি শত কোটি টাকার ফসলি জমিজমা ও বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তারা এ বিষয়ে লোহাগড়া উপজেলা সহকারী (ভূমি)পদ্মাসন সিংহের কাছে যবলীগ নেতা মোঃ বাদশা খালেকের নামে অভিযোগ করলে তিনি সরেজমিনে স্পটে গেলে বাদশা খালেকের সন্ত্রাসী বাহিনীর লোকজন তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন এবং এক পর্যায়ে তাদের কে মারধর করেন বলেও অভিযোগ পাওয়া যায়।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা প্রশাসন কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলে, তারা এ প্রতিবেদককে বলেন বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে এবং প্রয়োজনে  মামলা করা হবে।

এই ব্যাপারে যুবলীগ নেতা বাদশা খালেদ তার বক্তব্যে বলেন,ঘটনার সময় আমি ছিলাম না এবং আমি বৈধ ইজারাদার। দীর্ঘদিন যাবৎ ঐখান থেকে বালু উত্তোলন করে আসছি।

0Shares

Comment here